নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তে স্থলমাইন বিস্ফোরণে যুবক নিহত

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম সীমান্তে স্থলমাইন বিস্ফোরণে অজ্ঞাত (৩২) এক যুবক নিহত হয়েছেন। আজ মঙ্গলবার (৩ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে সীমান্তের তুয়াইংগা ঝিরি নামক স্থান থেকে ওই যুবকের ক্ষত-বিক্ষত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, তার শরীর থেকে দুই পা বিচ্ছিন্ন ও চোখ উপড়ে গেছে। বাংলাদেশ অংশেই এ যুবকের মরদেহ পড়েছিল। তবে সীমান্তে মিয়ানমার বাহিনীর পুতে রাখা মাইন বিস্ফোরণে তার মৃত্যু হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। রাত ১০ টার দিকে মরদেহ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে ঘুমধুম পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইমন চৌধুরী।

তিনি বলেন, ‘খবর পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে। মরদেহের চিত্র দেখে মনে হচ্ছে মাইন বিস্ফোরণে তার মৃত্যু হতে পারে। কারণ, তার শরীর থেকে দুই পা বিচ্ছিন্ন রয়েছে। চোখ ও অন্যান্য জায়গাও বেশ ক্ষত-বিক্ষত।’

প্রসঙ্গত, বান্দরবানের মিয়ানমারের সীমান্তবর্তী উপজেলা নাইক্ষ্যংছড়ির তুমব্রু, ঘুমধুম ও আশারতলী সীমান্তে মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা স্থল মাইন পুতে রাখে বলে অভিযোগ দীর্ঘদিনের।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।