নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তে স্থল মাইন বিস্ফোরনে রোহিঙ্গা কিশোর নিহত

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তের রেজু -আমতলী এলাকার ৪০ নং সীমান্ত পিলার হতে আনুমানিক ১০০ গজ মিয়ানমারের অভ্যন্তরে স্থল মাইন বিস্ফোরণে ১ রোহিঙ্গা কিশোর নিহত হয়েছে। নিহতের নাম মোঃ জাবের (১৩)।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার দুপুরে কিছু সংখ্যক বাস্তুচ্যুত মিয়ানমার নাগরিক মাছ ধরার উদ্দেশ্যে অবৈধভাবে মায়ানমারে প্রবেশ করে। পরবর্তীতে মাছ ধরা শেষে একই স্থান দিয়ে মিয়ানমার হতে বাংলাদেশের বান্দরবান সীমান্তে প্রবেশের সময় মাইন বিষ্ফোরণে মোঃ জাবের নিহত হয়। সে কুতুপালং লাম্বাশিয়া রোহিঙ্গা শিবির-১/ডব্লিউ, ব্লক-ডি/৪-১৪ এর এমদাদ এর সন্তান।

আরো জানা যায়, স্থানীয় কয়েকজন রোক শনিবার সকালে কাপড়ে মোড়ানো অবস্থায় কাধে করে একটি বস্তু নিয়ে আসতে দেখে বিজিবি টহলদল তাদের তল্লাশী করলে কাপড়ে মোড়ানো বস্তুটি খুলে এই কিশোরের ক্ষতবিক্ষত লাশ দেখতে পেয়ে এই কিশোরের লাশ উদ্ধার করে বিজিবি।

এই ব্যাপারে নাইক্ষ্যংছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন বলেন, মাইন বিস্ফোরণে নিহত রোহিঙ্গার পা উড়ে গেছে, তার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে, এখন আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।
প্রসঙ্গত, গত ২৩ সেপ্টেম্বর জেলার নাইক্ষ্যংছড়ির ঘুমধুম ইউনিয়নের বাইশফাড়ি সীমান্তে স্থল মাইন বিস্ফোরণে মিয়ানমারের রোহিঙ্গা নাগরিক আব্দুল মজিদ নিহত হয়।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।