নানা আয়োজনে লামায় যুবলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

লামায় যুবলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে দলীয় পতাকা হাতে নেতাকর্মীরা
সারা দেশের ন্যায় বান্দরবানের লামায় আওয়ামী লীগের অন্যতম সহযোগী সংগঠন আওয়ামী যুবলীগের ৪৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে রোববার বিকালে উপজেলা ও পৌর শহর যুব লীগের উদ্যোগে এক র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি উপজেলা শহরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে জেলা পরিষদ গেষ্ট হাউজ মিলনায়তনে গিয়ে এক আলোচনা সভায় মিলিত হয়।
দলীয় পতাকা উত্তোলনের পর পৌর শহর যুবলীগের সভাপতি মো. সাঈদুর রহমান সাঈদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ মাহাবুবুর রহমান। এতে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বাথোয়াইচিং মার্মা, বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা জামাল, সাংগঠনিক সম্পাদক ও পৌরসভা মেয়র মো. জহিরুল ইসলাম, যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক বিজয় আইচ, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ রফিক, উপজেলা যুব লীগের সভাপতি মো. জাহেদ উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ কান্তি দাশ প্রমুখ বিশেষ অতিথি ছিলেন। সভায় বক্তারা বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শের আদলে অসাম্প্রদায়িক, গণতান্ত্রিক ও শোষণমুক্ত বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে যুবসমাজকে সম্পৃক্ত করার লক্ষ্য নিয়েই প্রতিষ্ঠিত হয় এ সংগঠনটি। গত চার দশকের বেশি সময় ধরে দীর্ঘ লড়াই-সংগ্রাম ও হাজারো নেতাকর্মীর আত্মত্যাগের মাধ্যমে যুবলীগ আজ দেশের সর্ববৃহৎ যুব সংগঠনে পরিণত হয়েছে।
তারা আরো বলেন, গত আওয়ামীলীগ সরকারের আমলে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপির প্রচেষ্টায় লামা তথা গোটা বান্দরবানে রাস্তা ঘাট, কালভার্ট,ব্রিজ, স্কুল, কলেজ,মাদ্রাসা,বিদ্যুৎ, হাসপাতাল, ফায়ার সার্ভিসসহ ব্যাপক উন্নয়ন কাজ বাস্তবায়ন হয়েছে। বর্তমানেও কোটি কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ চলছে। তাই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট প্রদান করে বীর বাহাদুর উশৈসিং কে নির্বাচত করার আহবান জানান।
শেষে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর কেক কেটে উপস্থিত নেতাকর্মীদের মুখে তুলে দেন প্রধান অতিথি শেখ মাহাবুবুর রহমান। প্রসঙ্গত, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশে শেখ ফজলুল হক মণির নেতৃত্বে ১৯৭২ সালের ১১ নভেম্বর রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে এক যুব কনভেশনের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠা লাভ করে।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।