নিজেদের চিরচেনা বনে ফিরে গেল বিলুপ্ত লজ্জাবতী বানর

বান্দরবানের আলীকদমে উপজেলার দামতুয়া এলাকার গহীন পাহাড়ি বনে অবমুক্ত করা হল আন্তর্জাতিক প্রকৃতি ও প্রাকৃতিক সম্পদ সংরক্ষণ সংঘের (আইইউসিএন) লাল তালিকায় থাকা দুইটি বিপন্ন লজ্জাবতী বানর ।

গত বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) বিকাল বেলা আলীকদম থানচি সড়কের ১৭কিলো এলাকার দামতুয়া ঝর্ণার কাছাকাছি গহীন বনে লজ্জাবতী বানর গুলোকে ছেড়ে দেওয়া হয়। এসময় লামা বনবিভাগের সহকারী বন কর্মকর্তাসহ বন বিভাগের বিভিন্ন কর্মকর্তা ও স্থানীয় পাড়াবাসিরা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে গত মঙ্গলবার সকালে চৈক্ষ্যং ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের কাখই ম্রো পাড়া থেকে উদ্ধার করা হয়। পরে স্থানীয় যুবক শলোমন ম্রোর লজ্জাবতী বানর দুইটি বনবিভাগের নিকট হস্তান্তর করেন।

শলোমন ম্রো বলেন, বিপন্ন লজ্জাবতী বানর গুলো কাখই ম্রো পাড়ার বাসিন্দা কাংদুই ম্রো জুমে যাওয়ার পথে দেখেন, কিছু কুকুর দুইটি লজ্জাবতী বানরকে ঘিরে রেখেছে, এসময় তিনি ও স্থানীয় মিলে লজ্জাবতী বানর দুটো উদ্ধার করে। স্থানীরা লজ্জাবতী বানর গুলো বিক্রি করার চেষ্টা করছে, এমন খবর পেয়ে বিপন্ন লজ্জাবতী বানর গুলো উদ্ধার করে মাতামুহুরি রেঞ্জ কর্মকর্তার কাছে হস্তান্তর করি।

লামা বনবিভাগের সহকারী বন কর্মকর্তা খন্দকার মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন জানান,বন্য প্রাণীদের আপন ঠিকানা হল তাদের বন। আমরা অক্সিজেন ছাড়া এক মুহূর্তও বাঁচতে পারব না,বন্যপ্রাণীও এই বন জঙ্গল ছাড়া নিজেদের অস্থিত্ব টিকিয়ে রাখতে পারবে না। তাই তাদের স্থান থেকে উদ্ধার করা হয়েছে সেখানের গহীন বনে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। তাই দূর্গমে লজ্জাবতী বানর দুটো অবমুক্ত করতে যাওয়া। পাড়ার কার্বারীসহ স্থানীয় যুবকদের কোন বন্য প্রাণী শিকার বা বিক্রি না করতে বলেছি। কেউ বন্যপ্রাণী ধরে রাখলে জানালে তাদের পুরষ্কৃত করা হবে। লজ্জাবতী বানর দুটোকে উদ্ধারকারীকে বনবিভাগের পক্ষ থেকে পুরষ্কৃত করা হবে।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।