নিজের ভোট নিজেকেই দেননি : মাটিরাঙ্গায় যে প্রার্থীর শূন্য ভোটের রেকর্ড

ইউপি নির্বাচনে নিজেদের জয়ী হবার লক্ষ্যকে সামনে রেখে ভোটারদের কাছ থেকে ভোট নেয়ার শত কৌশল নিক্ষেপ করে ভোট উদ্ধার করেন। সেখানে এ প্রার্থী নিজের ভোট টি নিজেকে দেন নি। খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গা উপজেলার তাইন্দং ইউনিয়নে ইউপি নির্বাচনে ঘটেছে এমন ব্যাতিক্রমী ঘটনা।

এ ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ড সদস্য প্রার্থী মো. আবু তাহের একটি ভোটও পাননি। এমনকি তিনি নিজে ও স্বজনরা তাকে ভোট দেননি। নিজের জয়ী হবার সম্ভাবনা নিশ্চিত মনে করে এবং প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী মো.জুলহাজ মিয়াকে (ফুটবল) পরাজিত করতে এমন ব্যাতিক্রমী উপায় অবলম্বন করেছেন বলে জানা গেছে।

তিনি সদস্য পদে তার পছন্দের প্রার্থী মো. আনোয়ার হোসেনকে (তালা)ভোট দিয়েছেন এবং নির্বাচিত হয়েছেন তিনি।

এদিকে নির্বাচনে আবু তাহেরের প্রতীক ছিল মোরগ। আবু তাহের নিজেই নিজেকে ভোট না দেয়ার ফলে তিনি শূন্য ভোটের অনন্য রেকর্ড অর্জন করেছেন। তবে তার এহেন কর্মকাণ্ড নিয়ে ইতিমধ্যে এলাকায় ব্যাপক আলোচনা সমালোচনা শুরু হয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়,প্রতিপক্ষকে পরাজিত করার লক্ষ্যে তিনি নির্বাচন করার সিদ্ধান্ত নেন। যদি তিনি ভোটে অংশ নেন, তাহলে তার প্রধান প্রতিপক্ষ জুলহাজ মিয়া সদস্য নির্বাচিত হয়ে যাবেন। সে কারণে তিনি ঘোষণা দেন তার নিজের ভোট নিজের মার্কায় দেবেন না। এমনকি তার পরিবারে সদস্যরাও ভোট দেবেন না বরং তিনি নিজে ও স্বজনদের ভোট তার পছন্দের প্রার্থী আনোয়ার হোসেনকে তালা মার্কায় দেওয়ার জন্য বলেন। শেষ পর্যন্ত আনোয়ার হোসেন ৪১৪ ভোট পেয়ে সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। তার প্রতিদ্বন্দ্বী জুলহাস মিয়া পেয়েছেন ৩৩৭ ভোট।

তাহের জানান, আমি বৃহস্পতিবার (১১ নভেম্বর) অনুষ্ঠিত ইউপি নির্বাচনে ৭নং ওয়ার্ডে সদস্য প্রার্থী ছিলাম। সেখানে আমিসহ মোট প্রার্থী ছিলেন তিন জন। কিন্তু প্রতীক বরাদ্দের পর আমি বুজতে পারি আমার জয়ী হওয়ার কোন সম্ভাবনাই নাই। তাই ভোট টি নষ্ট না করে আমি নিজের ভোটটি নিজেকে নি দিয়ে আমার পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দেই।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।