নির্বাচিত হলে পার্বত্যবাসীর ভাগ্য উন্নয়নে কাজ করে যাবো : দীপংকর তালুকদার

রাঙ্গামাটি কাউখালী উপজেলার কলমপতি ইউনিয়নের সভায় দীপংকর তালুকদার
আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ২৯৯নং আসনের আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী দীপংকর তালুকদার জানিয়েছেন, নির্বাচিত হলে পার্বত্য অঞ্চলের পাহাড়ী-বাঙালী সকল সম্প্রদায়ের ভাগ্য উন্নয়নে কাজ করে যাবেন। তিনি জানান, আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় গেলে ও নির্বাচিত হলে রাঙ্গামাটিতে ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ, কৃষি কলেজ, টেক্সটাইল কলেজ প্রতিষ্ঠা করার উদ্দ্যেগ গ্রহন করবে। পাশাপাশি রাঙ্গামাটির প্রত্যন্ত অঞ্চলে যোগাযোগ ক্ষেত্রে ভূমিকা রাখবে।
আজ সকালে রাঙ্গামাটি কাউখালী উপজেলার কলমপতি ইউনিয়নের বেতবুনিয়া বাজার, আর্দশ পাড়া, এরাবুনিয়া, সোনাইছড়িসহ বিভিন্ন ইউনিয়নে নির্বাচনী পথ সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
তিনি আরো জানান, শান্তি চুক্তির পরে পার্বত্য অঞ্চলে শান্তির সু-বাতাস বইছে কিন্তু অবৈধ অস্ত্রধারীদের দ্বারা ঘুম, হত্যা, চাঁদাবাজি, অপহরণের কিছুটা তৎপরতা রয়েছে। পার্বত্য অঞ্চলকে পুনঃশান্তি প্রতিষ্ঠায় কাজ করে যাচ্ছে সরকার। পার্বত্য অঞ্চলের শান্তি চুক্তি বাস্তবায়নে ও শান্তি প্রতিষ্ঠায় আওয়ামীলীগ সরকারের বিকল্প নেই।
এসময় কাউখালী উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি অংসুই প্রু চৌধুরী, রাঙ্গামাটি মহিলা সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য ফিরোজা বেগম চিনু, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি চিংকিউ রোয়াজাসহ অন্যন্যা নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।
পার্বত্য অঞ্চলের অবৈধ অস্ত্রধারীদের প্রসঙ্গে দীপংকর বলেন, শান্তিপ্রিয় পাহাড়ী-বাঙ্গালী রাঙ্গামাটিবাসী অবৈধ অস্ত্রধারী, সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ ও সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে শান্তি ও গণতন্ত্রের পক্ষে ব্যালটকে অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করবে। তিনি বলেন, আজকে লংগদুসহ রাঙ্গামাটির দশ উপজেলায় শেখ হাসিনার নৌকার পক্ষে যে গণ জোয়ার সৃষ্টি হয়েছে, তাতে গণতন্ত্রের বিপক্ষ শক্তি অবৈধ অস্ত্রধারীদের পরাজয় ঘটবে।

আরও পড়ুন
Loading...