পর্যটক বরণে প্রস্তুত বান্দরবান

বান্দরবানের নীলআচল পর্যটন কেন্দ্র।
বান্দরবানের নীলআচল পর্যটন কেন্দ্র।
রাত পোহালেই ঈদ-উল- আযহা, ছুটিতে ভ্রমন প্রেমীরা ছুটে আসবে পাবর্ত্য কণ্যা বান্দরবানে । তাদের আপন করে নিতে নতুন সাজে সাজছে পার্বত্য জেলা বান্দরবান। জেলা সদরের পর্যটনকেন্দ্র মেঘলা, নীলাচল, নীলগিরি, বৌদ্ধ জাদি, শৈলপ্রপাত, চিম্বুকসহ বিভিন্ন পর্যটন স্পট ও হোটেল-মোটেলগুলো পর্যটক বরণের জন্য প্রস্তুত হয়ে পড়েছে । মেঘলা পর্যটন কেন্দ্রের সুবিশাল লেক,চিড়িয়াখানা ,কেবল কার ভ্রমন,শৈলপ্রপাতের সুশীতল ঝর্ণায় স্নান, নীলাচলের মনোরম প্রাকৃতিক সৌর্ন্দয্য, প্রান্তিক লেকের নয়নাবিরাম দৃশ্য ,চিম্বুক পাহাড়ের বিশালতা ও স্বর্ণ মন্দিরের সৌর্ন্দয্য সহজেই পর্যটকদের আকৃষ্ট করবে। ভ্রমন পিপাসুদের আশ্রয়স্থল শহরের হোটেল পূরবী, হিল ভিউ,হিল কুইনসহ মোটেলগুলো তৈরি হচ্ছে পুরোপুরি। শহরের অধিকাংশ হোটেল মোটেল ইতিমধ্যে বুকিং হয়ে গেছে, শেষ মুহুর্তে পর্যটকদের বরণে প্রস্তুতি নিচ্ছে পর্যটক সংশ্লিষ্ট সকলে।
বান্দরবান হোটেল হিলটনের ম্যানেজার শুভ জানান , আমাদের সত্তরটি রুমের মধ্যে সব রুমই বুকিং হয়ে গেছে, আশা করি এই ঈদে আমরা বেশি পর্যটক পাব।
বান্দরবানে মেঘ আর পাহাড়ের সম্পর্কের কথা, নতুন করে বলার কিছুই নেই। তবুও বলতে হয়, পাহাড়ের সাথে আকাশের সারি সারি মেঘ-ভেলার সর্ম্পকের নতুন মাত্রা এনে দেয় এই ঝুম বরষার সময়। পাহাড়ের বুক চিরে শত শত ঝর্ণা ধারা আপনাকে নিয়ে যাবে যেন কোন অচেনা ও নতুন কোন রাজ্যে।
বান্দরবানের রুমার পর্যটন কেন্দ্র বগালেক।
বান্দরবানের রুমার পর্যটন কেন্দ্র বগালেক।
এছাড়া শহরের কাছের নীলআচল, চিম্বুক, জীবননগর আর নীলগিরির ওপর দাঁড়িয়ে মেঘ স্পর্শ করার ইচ্ছে হলে আপনাকে অবশ্যই ভ্রমণের জন্য বেছে নিতে হবে বান্দরবানকে, তাই পর্যটকরা ছুটি পেলেই যেন ছুটে আসে বান্দরবানে।
বান্দরবান হোটেল মোটেল মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো.সিরাজুল ইসলাম জানান, ঈদ উপলক্ষে বান্দরবানের প্রায় পঞ্চাশটি হোটেল নতুনভাবে সাজানো হয়েছে । দেশের সামগ্রিক পরিস্থিতি ভালো থাকায় আশারুপ পর্যটক বান্দরবানে আসবে বলে আমার প্রত্যাশা।
এদিকে পর্যটক আগমনের বিষয়টি মাথায় রেখে জেলার সকল পর্যটন কেন্দ্রগুলোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা আরো জোরদার করা হবে ,পর্যটকরা যাতে নিরাপদে ঈদে বান্দরবান ভ্রমন করতে পারে তার জন্য প্রস্তুত পুলিশ প্রশাসন।
বান্দরবান সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ( ওসি) মে: রফিকউল্লাহ জানান, পবিত্র ঈদে বান্দরবানে ভ্রমনে পর্যটকদের জন্য পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে, পর্যটকের সানন্দে বান্দরবান ভ্রমন করতে পারবে।
হরতাল-অবরোধসহ রাজনৈতিক অস্থিরতা ও দেশের আইনশৃংখলা পরিস্থিতি ভালো থাকায় পর্যটকরা বান্দরবান ভ্রমনে তৃপ্তি পাবে এবং পর্যটন সংশ্লিষ্টরা কিছুটা বাড়তি আয় করতে পারবে এমনটাই মনে করেন স্থানীয়রা।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।