‘পার্বত্য চট্টগ্রামে সম্প্রীতি ও সহাবস্থানে স্থানীয় প্রতিষ্ঠানকে শক্তিশালী করতে হবে’

‘পার্বত্য চট্টগ্রামে উন্নয়ন, সম্প্রীতি ও সহাবস্থানের জন্য শান্তিচুক্তির পূর্ণ বাস্তবায়ন, ভূমি কমিশনকে কার্যকর করা ও স্থানীয় রাজনৈতিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে শক্তিশালী করার ওপর গুরুত্ব দিতে হবে। সহিংসতা দূর করতে সংবিধানের প্রতি অকুণ্ঠ সমর্থন এবং স্থানীয় সব শ্রেণির মানুষকে সঙ্গে নিয়ে আর্থসামাজিক উন্নয়ন করতে হবে। গতকাল জাতীয় প্রেস ক্লাবে ‘পার্বত্য চট্টগ্রামের সার্বিক উন্নয়ন : সম্প্রীতি ও সহাবস্থানের গুরুত্ব’ শীর্ষক এক গোলটেবিল বৈঠকে বক্তারা এসব কথা বলেন। সাবেক কূটনীতিক ও আইসিএলডিএসের চেয়ারম্যান মো. জমিরের সভাপতিত্বে বৈঠকে স্বাগত বক্তব্য দেন আইসিএলডিএসের নির্বাহী পরিচালক ও নিরাপত্তা বিশ্লেষক মেজর জেনারেল (অব.) আব্দুর রশীদ। দৈনিক ভোরের কাগজ সম্পাদক শ্যামল দত্ত অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন। পৃথকভাবে তিনটি মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক ড. দেলোয়ার হোসেন ও সাবেক পররাষ্ট্র সচিব, রাষ্ট্রদূত ও কূটনীতিক সিএম শফি সামি। বৈঠকে পার্বত্য চট্টগ্রামবিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম শান্তিচুক্তির বাস্তবায়ন নিয়ে হতাশ হওয়ার কিছুই নেই।

আরও পড়ুন
Loading...