পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি : রাঙামাটিতে শান্তি চুক্তির ১৯ তম বর্ষপূতি পালিত

রাঙামাটি জিমনেশিয়াম চত্বরে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য ঊষাতন তালুকদার
রাঙামাটি জিমনেশিয়াম চত্বরে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য ঊষাতন তালুকদার
পাল্টাপাল্টি কর্মসূচির মধ্য দিয়ে রাঙামাটিতে পালিত হয়েছে পার্বত্য চুক্তির ১৯ তম বর্ষপূর্তি। চুক্তির বর্ষপূর্তিতে আজ শুক্রবার সকালে রাঙামাটি জিমনেশিয়াম চত্বরে পার্বত্য চুক্তি পূর্ণাঙ্গ বাস্তবায়নের দাবিতে গণ সমাবেশ করে পাহাড়িদের আঞ্চলিক সংগঠন পার্বত্য চট্টগ্রাম জন সংহতি সমিতি রাঙামাটি জেলা কমিটি।
সংগঠনের জেলা সভাপতি সুবর্ণ বিকাশ চাকমার সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন রাঙামাটি আসনের সংসদ সদস্য ঊষাতন তালুকদার, বাংলাদেশ আদিবাসী ফোরামের সভাপতি প্রকৃতি রঞ্জন চাকমা, মহিলা সমিতির সভানেত্রী সুপ্রভা চাকমা, ঐক্য ন্যাপের কেন্দ্রীয় সদস্য পাহাড়ি ভট্টাচার্য।
সমাবেশে বক্তারা অভিযোগ করেন, সরকার শান্তিচুক্তি বাস্তবায়নের কথা বলে পাহাড়ি জনগণের সাথে প্রতারনা করছে। সরকার চুক্তি বাস্তবায়নের দাবিতে আন্তরিক নয় উল্লেখ করে আরো বলেন, সরকারের মদদে পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তির বিরোধীতা চলছে।

এদিকে সকাল ১১ টায় পার্বত্য চুক্তি বাতিলের দাবিতে শহরে কালো পতাকা মিছিল করেছে পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদ। কাঠালতলীস্থ দলীয় কার্যালয় থেকে মিছিলটি শুরু হয়ে প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে বনরুপা ঘুরে দলীয় কার্যালয়ে গিয়ে শেষ হয়। মিছিল থেকে অবিলম্বে পার্বত্য চুক্তি বাতিল ও পার্বত্য চট্টগ্রামে অবৈধ অস্ত্র উদ্ধারের দাবি জানানো হয়। মিছিলে নেতৃত্ব দেন বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি সাব্বির আহমদ। এ সময় সংগঠনের জেলা সভাপতি ইব্রাহীম, সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, ছাত্রনেতা নজরুল ইসলাম ও আসাদ উপস্থিত ছিলেন।

রাঙামাটি জিমনেশিয়াম চত্বরের সমাবেশে জনসংহতি সমিতির নেতাকর্মীরা
রাঙামাটি জিমনেশিয়াম চত্বরের সমাবেশে জনসংহতি সমিতির নেতাকর্মীরা
এর আগে রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের উদ্যোগে চুক্তির বর্ষপূর্তি উপলক্ষে আনন্দ শোভাযাত্রা ও সমাবেশের আয়োজন করা হয়। সকাল ১০টায় জেলা পরিষদ কার্যালয় থেকে শোভাযাত্রাটি শুরু হয়ে রাঙামাটি পৌরসভা চত্বরে সমাবেশে মিলিত হয়। জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বুষকেতু চাকমার সভাপতিত্বে সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন সাবেক পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার। বক্তব্য রাখেন মহিলা সংসদ সদস্য ফিরোজা বেগম চিনু, রাঙামাটি রিজিয়ন কমান্ডার সানাউল হক, পুলিশ সুপার সাঈদ তারিকুল হাসান প্রমুখ।
সমাবেশে বক্তারা দাবি করেন, সরকার পার্বত্য শান্তিচুক্তির ৮০ শতাংশ বাস্তবায়ন করেছে, সামনে শান্তিচুক্তির পূর্ন বাস্তবায়নে কাজ করবে।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।