পাহাড়ীদের পরিপূর্ণ পুর্নবাসনের ব্যবস্থা করা হবে-স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাসিম

এ ঘটনার সাথে পাহাড়ী বাঙালী কোন সম্পর্ক নেই। নয়ন হত্যার যারা মুল অপরাধী তাদের কোন ধর্ম ও বর্ণ নেই। লংগদুতে ক্ষতিগ্রস্থ এলাকা পরিদর্শন শেষে ১৪ দলের সমন্বয়ক ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মো. নাসিম।তিনি বলেন,আমি এখানে কয়েকটি ক্ষতিগ্রস্থ এলাকা গিয়েছি। যেসব বাড়ীগুলো ধ্বংস হয়ে গেছে তা পরিপুর্নভাবে তৈরী করে দেয়া হবে এবং পুর্ণবাসনের ব্যবস্থা করা হবে। এখানে পাহাড়ী বাঙালীর মধ্যে সম্প্রীতি আছে তারপরও কিছুটা ভীতি থাকে। এখানে প্রশাসন যদি সাথে সাথে ব্যবস্থা না নিতো তাহলে আরো ভয়াবহ দুর্ঘটনা ঘটতে পারতো। এছাড়া ক্ষতিগ্রস্থ সবাইকে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন মন্ত্রী।
বুধবার দুপুরে ১৪ দলের উদ্যোগে লংগদুতে ক্ষতিগ্রস্থ এলাকা পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন। এরপর মানিকজোড় ছড়া, তিনটিলা বিহারে ক্ষতিগ্রস্থদের সঙ্গে কথা বলেন নেতৃবৃন্দ।
মন্ত্রী বলেন, এলাকায় সম্প্রীতি নষ্টের জন্য কেউ কেউ ইন্ধন দিচ্ছে। কেউ ইচ্ছে করলেই আইন নিজের হাতে তুলে নিতে পারে না। তিনি সবাইকে সম্প্রীতি নিয়ে বসবাসের আহ্বান জানান।
তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী বিষয়টির খোঁজ-খবর রাখছেন। আমরা পরিদর্শন শেষে প্রধানমন্ত্রীর কাছে গিয়ে এখানকার বিষয়টি অবগত করবো।
১৪ দলের সমন্বয়ক মো. নাসিম বলেন, আমি পাহাড়ি ভাইদের আশ্বস্ত করছি- দোষীদের কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। যেসব বাড়িঘর পুড়ে গেছে তাদের পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করা হবে। তাদের বাড়িঘর নির্মাণ করে দেওয়া হবে। বাড়িঘর নির্মাণ করে তাদের স্থায়ী নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হবে।আমাদের পুলিশ বাহিনী, সেনাবাহিনী এদের সবার নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হবে।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হেসেন বাদশা এমপি, পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর এমপি, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মানজারুল মান্নান, পুলিশ সুপার সাঈদ তারিকুল হাসানসহ ১৪ দলের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

আরও পড়ুন
Loading...