পাহাড়ের অধিকাংশ জমি বন বিভাগের দখলে: মতবিনিময় সভায় হেডম্যান, কারবারিরা

পার্বত্য চট্টগ্রামে ১৯০০ সালের রেগুলেশন অনুযায়ি হেডম্যানদের উপর অর্পিত দায়িত্ব থাকার পরও পার্বত্য এলাকার অধিকাংশ জমি বন বিভাগের দখলে রয়েছে। “হেডম্যান-কারবারি এক সাথে চলি,প্রথা রীতি নীতি সংরক্ষণে এক থাকি” শ্লোগানের মধ্যে দিয়ে বান্দরবানের রোয়াংছড়িতে হেডম্যান ও কারবারি কল্যাণ পরিষদের (হেকাকপ) আয়োজনে রোয়াংছড়ি উপজেলা টাউন হলে হেডম্যান-কারবারিদের এক মতবিনিময় ও আলোচনা সভায় বক্তারা একথা বলেন।

এসময় অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে ও বোমাং রাজার সার্কেলে রীতি নীতি প্রথা দিন দিন বিলুপ্তের পথে। যার যার জনগোষ্ঠীর রীতি নীতি প্রচলিত প্রথাগত আইন, রীতিনীতি,বিচার, ও শাসন পদ্ধতি যুগোপযোগী করতে হেডম্যান ও কারবারিদের অগ্রণী ভূমিকা রাখা জরুরী।

বৃহস্পতিবার (১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২০) আয়োজিত অনুষ্ঠানে বান্দরবান জেলা কারবারি কল্যাণ ফোরামের সহ সভাপতি আথুইমং মারমা ও হেকাকপ সাধারণ সম্পাদক হেডম্যান উনিহ্লা মারমা এর সঞ্চালনায় ৩৩৯ নং বেক্ষ্যং মৌজা হেডম্যান ক্যশৈঅং মারমা সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান চহাইমং মারমা।

বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ১নং রোয়াংছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান চহ্লামং মারমা, আলেক্ষ্যং ইউপি চেয়ারম্যান বিশ্বনাথ তঞ্চঙ্গ্যা,তারাছা ইউপি চেয়ারম্যান উথোয়াইচিং মারমা, নোয়াপতং ইউপি চেয়ারম্যান অংথোয়াইচিং মারমা, হেডম্যান সাশৈপ্রু মারমা, হেডম্যান মংক্যনু মারমা, হেডম্যান মংনু মারমা,হেডম্যান মেচিং মারমা, চসিংপ্রু মারমা, সেপ্রু পাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক ও ৩৪৬নং ম্রক্ষ্যং মৌজা হেডম্যান বাথোয়াইমং মারমা।

এসময় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন হেডম্যান ও কারবারি কল্যাণ পরিষদের সভাপতি ও বেতছড়া মৌজা হেডম্যান হ্লাথোয়াইহ্রী মারমা। এছাড়া আরো বক্তব্য রাখেন,কারবারি উথোয়াইপ্রু মারমা, কারবারি সাপ্লাই বম, হেডম্যান মংনু মারমা,মেচিং মারমা। অনুষ্ঠানে মৌজা হেডম্যান সহ দেড় শতাধিক কারবারিগণ উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন
Loading...