পাহাড়ের বৈসাবি উৎসব সংক্ষিপ্ত হচ্ছে

বৈসাবি মানে পাহাড়ের আনন্দ উৎসব। এবার এই আনন্দ উৎসবে যেন জল ঢেলে দিচ্ছে করোনা ভাইরাস। মূলত করোনা আতংক থেকে এবার পাহাড়ের নব বর্ষবরণের উৎসব “বৈসাবি” সংক্ষিপ্ত করা হচ্ছে।

প্রথমবারের মতো বর্ষবরণের উৎসব “বৈসাবি” সংক্ষিপ্ত করা হচ্ছে বলে জানলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং।

বুধবার (১৮ মার্চ) দুপুরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং বলেছেন, করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় পার্বত্য এলাকার টিম গঠনের মাধ্যমে সব পর্যটককে পর্যবেক্ষণের আওতায় আনা হয়েছে। তারা কে কোথায় যাচ্ছে, কোথায় থাকছে, তাদের স্বাস্থ্য পরিস্থিতি সম্পর্কে খোঁজ নেয়া হচ্ছে।

এসময় পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর এমপি আরো বলেন, করোনা সঙ্কট না কাটা পর্যন্ত নববর্ষ উপলক্ষে পার্বত্য এলাকায় আয়োজিত বৈসাবিসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠান সংক্ষিপ্ত করাসহ প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হবে।

প্রসঙ্গত,চাকমাদের ভাষায় এ উৎসবকে বিঝু,ত্রিপুরাদের ভাষায় বৈসুক এবং মারমাদের ভাষায় সাংগ্রাই এবং তংচঙ্গ্যাদের ভাষায় বিসু এবং অহমিয়াদের ভাষায় বিহু নামে আখ্যায়িত করা হয়। তিন সম্প্রদায়ের প্রাণের এই উৎসবের নামের আদ্যক্ষর নিয়েই তাই এই উৎসবকে বলা হয় “বৈসাবি” উৎসব।

আরও পড়ুন
Loading...