পাহাড়ে নারী উন্নয়ন ও সক্ষমতা বাড়াতে সহযোগিতা বৃদ্ধির তাগিদ

খাগড়াছড়িতে সুইডেন ও সুইজাল্যান্ড’র ২ রাষ্ট্রদূত

সমাজে ও পরিবারের মধ্যে নারীর প্রতি সহিংসতা রোধে নারীদের মাঝে সচেতনতা বৃদ্ধি ও আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে খাগড়াছড়িতে চলমান উন্নয়ন কাজ পরিদর্শন করেছেন, সুইডেন ও সুইজারল্যান্ড দূতাবাসের কূটনৈতিকরা।

আজ মঙ্গলবার (২৬অক্টোবর) দুপুরে খাগড়াছড়ি জেলা সদরের যুবরাজ পাড়া ফুল বারেং নারী উন্নয়ন দলের সদস্যদের সাথে দেখা করেছেন। নারী দলের সদস্যদের সাথে তাঁরা দেখা করতে পেরে এবং কথা বলে, তাদের কাজের প্রশংসাও করেছেন।

সুইস এজেন্সি ফর ডেভলেপমেন্ট এন্ড কো-অপারেশন (এসডিসি) এর আর্থিক সহযোগিতা মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন’র কারিগরি সহায়তা নিয়ে স্থানীয়ভাবে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে তৃণমুল উন্নয়ন সংস্থা।

দূতাবাসের কূটনৈতিকরা নারী দলের সদস্যদের সাথে খোলামেলা কথা বলেন। নারী দলের কার্যক্রম, তাদের আর্থ সামাজিক উন্নয়নের বিভিন্ন উদ্যোগের সাথে পরিচিত হন।

নারী দলের সদস্যদের সাথে কখা বলেন সুইডেন দূতাবাসের কূটনৈতিক আলেক্সন্ড্রা বার্গ ভন লিনডা (ALEXANDRA BERG VON LINDE) এবং সুইজারল্যান্ড দূতাবাসের কূটনৈতিকক নাথালিয়ে চুওয়ার্ড (NATHALIE CHUARD)। প্রকল্প পরিদর্শনকালে সুইডেন দূতাবাস আলেক্সান্ড্রা বার্গ ভন লিনডা বলেন, “নারীরা যে কম সময়ে সক্ষমতা বেড়েছে তা দেখে আমি আনন্দিত।”

অন্যদিকে সুইজারল্যান্ড দূতাবাস নাথালিয়ে চুওয়ার্ড বলেন, “আমাদের খাগড়াছড়িতে পরিদর্শনে আসা স্বপনের মতন ছিল।”

পরিদর্শনকালে ইউএনডিপির আবাসিক প্রতিনিধি সুদীপ্ত মুখার্জি, মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক শাহীন আনাম, সুইডেন দুতাবাস’র সিনিয়র প্রোগ্রাম অফিসার (জেন্ডার ইকুলিটি, হিউম্যান রাইটস এন্ড ডেমোক্রেসি) মিজ রাহেনা খান, সিনিয়র পলিটিক্যাল, ইকোনমিক এন্ড কমিউনিকেশন অফিসার খালেদ চৌধুরী, সুইজারল্যান্ড দুতাবাস, ইউএনডিপি’র সহকারী আবাসিক প্রতিনিধি মি. প্রসেনজিত চাকমা, ইউএনডিপি’র খাগড়াছড়ি জেলা ব্যবস্থাপক মি. প্রিয়তর চাকমা, তৃণমূল উন্নয়ন সংস্থার নির্বাহী পরিচালক রিপন চাকমা, মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন’র সিনিয়র প্রোগ্রাম ম্যানেজার জাহেদ হাসান, প্রোগ্রাম ম্যানেজার মনজুরুল আলম,মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন, এবং পেরাছড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জনাব তপন বিকাশ ত্রিপুরা।

এসডিসি’র আর্থিক সহায়তায় ২০২০ সাল থেকে খাগড়াছড়ি জেলার সদর উপজেলায় তিনটি ইউনিয়নে ১৫টি নারী দলকে নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে সচেতনতা মুলক প্রশিক্ষণ, পরিবারে আর্থিক উপার্জনে আর্থ সামাজিক কার্যক্রমের প্রকল্প পরিচালিত হচ্ছে। প্রতিটি দলে ২০ জন নারী সদস্য রয়েছে। তারা যৌথভাবে পারিবারিক সহিংসতা, মাদক বিরোধী, স্বাস্থ্য বিষয়ক সচেতনতা বিষয়ে সমাজে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।