পুজা মন্ডপ পরিদর্শন করলেন বীর বাহাদুর

সনাতন ধর্মালম্বীদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজা উপলক্ষে বান্দরবানের কেন্দ্রীয় দুর্গাপূজা উদযাপন পরিষদের আয়োজনে স্থানীয় রাজার মাঠে চলছে ব্যাপক আয়োজন। আর এই আয়োজন উপভোগ করতে পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর এমপি।

মনোরম দুর্গা প্রতিমা স্থাপন, বিশালাকৃতির পুজামন্ডপ তৈরি ও প্রতিদিন ব্যাপক আয়োজনে সন্ধ্যারতি প্রতিযোগিতাসহ বিভিন্ন আয়োজন ব্যাপক সাড়া ফেলেছে দক্ষিণ চট্টগ্রামে। প্রতিদিনই অসংখ্য ভক্ত ভীড় জমাচ্ছে পুজামন্ডপে মন্ডপে। দুর্গাপূজার অষ্টমী উপলক্ষে রবিবার সকাল থেকে চলছে পুজা অর্চনা ও অঞ্জলি প্রদান ও ধর্মীয় প্রার্থনা এবং পুতিপাঠ। শান্তিপূর্ণভাবে পূজা উদযাপন করতে পেরে খুশি সকলে।

এদিকে শারদীয় দুর্গাপুজা উপলক্ষে গত শনিবার সন্ধ্যায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বান্দরবানের রাজার মাঠে কেন্দ্রীয় দুর্গাপূজা উদযাপন পরিষদের পুজামন্ডপ পরিদর্শন করেছে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি।

এসময় ৬৯ পদাতিক ব্রিগেডের কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল খন্দকার মো:শাহিদুল এমরান, এএফডব্লিউ, পিএসসি,অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো:শফিউল আলম,পুলিশ সুপার জাকির হোসেন মজুমদার,পৌর মেয়র মোহাম্মদ ইসলাম বেবী,আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য কাজল কান্তি দাশ,সদস্য মো:শফিকুর রহমান,ঠিকাদার ও সমাজ সেবক অমল কান্তি দাশ, বান্দরবান কেন্দ্রীয় দুর্গাপূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি লক্ষীপদ দাশ, সাধারণ সম্পাদক শেখর দাশসহ সরকারি বেসরকারি উর্ধতন কর্মকর্তা ও সনাতনী সমাজের নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।

এসময় প্রথমে বান্দরবানের রাজার মাঠের কেন্দ্রীয় দুর্গাপূজা উদযাপন পরিষদের পুজামন্ডপ পরিদর্শন করে মোমবাতি ও ধুপ জ্বালিয়ে দেবী দুর্গাকে প্রণাম করেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি।

পরে গরীব ও অসহায় নারীদের পুজা উপলক্ষে বস্ত্র বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠানে গরীব ও অসহায় ৬ শত নারীকে পুজা উপলক্ষে বস্ত্র বিতরণ করা হয়। আজ রোববার সন্ধ্যার পর পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর জেলা শহরের বালাঘাটা,কালাঘাটা ও মেম্বারপাড়াসহ বিভিন্ন এলাকার পূজামন্ডপ পরিদর্শন করেন। এসময় পূজা উৎযাপন পরিষদের নেতারা এবং আওয়ামীলীগের বিভিন্ন সহযোগী সংগঠনের নেতারা উপস্থিত ছিরেন।

প্রসঙ্গত,এবারে বান্দরবানে জেলা ও উপজেলা মিলে ২৭টি পুজামন্ডপে শারদীয় দুর্গাউৎসব উদযাপন হচ্ছে এবং আগামীকাল মহানবমী ও মঙ্গলবার দশমী পালনের মধ্য দিয়ে সনাতনী সমাজের এই বৃহত্তম শারদীয় দুর্গোৎসবের সমাপ্তি হবে।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।