প্রকাশ্যে ঘাতক, খুঁজে পাচ্ছেনা বান্দরবানের পুলিশ!

বান্দরবানে হত্যা মামলার আসামী প্রকাশ্যে চলাফেরা করলেও খুঁজে পাচ্ছেনা পুলিশ, এমন অভিযোগ হত্যার শিকার হওয়া এক মেয়ের বাবার।

গত বুধবার (৪ মে) সন্তান হারা নন্দিতার চক্রবর্তীর পিতা সজল চক্রবর্তী অভিযোগ জানান,
গত ২৮ এপ্রিল সকাল সাড়ে দশ টায় বান্দরবান সদরস্থ ব্রিগেড এলাকার নীলগিরি বেকারীর সামনে বান্দরবান পৌরসভার নিবন্ধন নম্বর ২১ সম্বলিত একটি বেপরোয়া টমটম (ব্যাটারি চালিত ইজিবাইক) আমার মেয়ে নন্দিতা চক্রবর্তী (৮) কে ধাক্কা দেয়।

নন্দিতা রাস্তায় পড়ে গেলে পুনরায় গাড়ি পেছনে দিয়ে বুকের উপর চালিয়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলে নন্দিতার মৃত্যু হয়।

পরে উক্ত টমটম চালক বান্দরবান সদর থানাধীন ভরাখালী এলাকার আহম্মদ কবিরের ছেলে নুরুল আলম (৩০) এর বিরুদ্ধে অভিযোগ করি। কিন্তু আমার মেয়েকে হত্যার ৭ দিন গত হয়ে গেলেও পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি। ঘাতক নুরুল আলম বালাঘাটা বাজারে প্রকাশ্যে ঘুরাফেরা করলেও পুলিশ বলছে, সে পলাতক আছে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বান্দরবান সদর থানা উপ-পুলিশ পরিদর্শক গোবিন্দ শর্মা জানান,নুরুল আলমকে আইনের আওয়াতায় আনতে কয়েকবার অভিযান করেছি এবং তাকে গ্রেপ্তারের প্রচেষ্টা চলমান আছে।

এবিষয়ে বান্দরবানের পুলিশ সুপার জেরিন আখতার জানান, টমটমের ধাক্কায় কন্যা শিশু নন্দিতা চক্রবর্তীর নিহতের ঘটনায় অভিযুক্ত চালককে দ্রুত আইনের আওতায় আনা হবে।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।