প্রচার প্রচারণায় সরগরম রুমার ইউপি নির্বাচন

বান্দরবানে রুমায় পাইন্দু ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের প্রচারণা জোরেশোরে চলছে। আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সবচেয়ে আলোচিত পাইন্দু ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের মেম্বার পদে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের নিয়ে। এ ওয়ার্ডের মামা ও আপন দুই ভাগিনার ত্রি-মুখি লড়াইয়ের প্রচারনায় স্থানীয়দের মধ্যে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা সমালোচনা ঝড় এখন তুঙ্গে।

নির্বাচন কার্যালয় ও স্থানীয় সূত্র জানায়, আসন্ন ইউপি নির্বাচনে পাইন্দু ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের মেম্বার পদপ্রার্থী ছয় জন। তবে ১২ নভেম্বর প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্ধ দেয়ার পর ১৪ নভেম্বর পেটে ল্যাঞ্চ রোগাক্রান্ত তংলুংগ্য মারমা(৪৮) মারা যান। এতে প্রার্থী থেকে যায় পাঁচ জন। প্রার্থীরা হলেন,বর্তমান মেম্বার গংবাশে মারমা (প্রতীক- ফুটবল মার্কা), অংসিনু মারমা (ঘুড়ি মার্কা), লুহ্লামং মারমা (আপেল মার্কা), ক্যসানু মারমা (তালা মার্কা) ও মংহ্লাচিং মারমা(বৈদ্যুতিক পাখা মার্কা)। তার মধ্যে বর্তমান মেম্বার গংবাশে মারমা, অংসিনু মারমা ও লুহ্লামং মারমা এই তিনজন সম্পর্কে আপন মামা-ভাগিনা।

দুই ভাগিনার ভাষ্য, মামা গংবাশে দুইবার মেম্বার পদে নির্বাচিত। আমরা ওই সময় মনপ্রাণ দিয়ে সহযোগিতা করছিলাম। এবার সে প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করেছে। তাই ভোটারদের সমর্থন নিয়ে ঘুড়ি মার্কা নিয়ে প্রচারনা চালিয়েছেন বলে জানালেন অংসিনু মারমা। তবে এ প্রতিবেদক ২নং ওয়ার্ডের বাগান পাড়া, পাইন্দু পাড়া ও সায়াগইং পাড়া ঘুরতে গিয়ে স্থানীয়রা বলেছেন এ ওয়ার্ডের সবচেয়ে আলোচনা-সমালোচনার বিষয় হচ্ছে মামা-ভাগিনা ত্রিমুখি লড়াই। এ লড়াই তাদের জন্য ভোটের হিসাব নিকাশ পাল্টে গিয়ে তাদের কাল হয়ে যেতে পারে।

স্থানীয়দের ভাষ্যমতে, আশির দশকের ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ছিলেন পাইন্দু মৌজা হেডম্যান প্রয়াত আনিমং মারমা। তাঁর কনিষ্ঠ সন্তান বর্তমান মেম্বার গংবাশে মারমা তৃতীয়বারের মতো মেম্বার পদে আবারো প্রার্থী হয়েছেন।
তাঁর সঙ্গে প্রয়াত হেডম্যান আনিমং বড় ছেলে ও পাইন্দু মৌজা হেডম্যান মংচউ মারমা ছেলে ও প্রয়াত হেডম্যানের মেজ সন্তান ও সাবেক মেম্বার মংচিংসার ছেলে যথাক্রমে লুহ্লামং ও অংসিনু মারমা এবার মেম্বার পদপ্রার্থী হয়েছেন। মূলত তাদের মামার প্রতি ক্ষোভ থেকে এ প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। তবে এর মধ্যে বয়সে সবচেয়ে তরুন হলেও অংসিনু ঘুড়ি প্রতীকে এগিয়ে রাখতে চেষ্টা করে যাচ্ছে।

পাইন্দু পাড়ার নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বেশ কয়েকজন বলেছেন, মামা ভাগিনা লড়াই করতে গিয়ে পাইন্দু পাড়ার আরেক মেম্বার পদপ্রার্থী ক্যসানু মারমার তালা মার্কা-ই শেষ-মেষ এগিয়ে থাকতে পারে। তাই থোয়াইম্ব পাড়ার থেকে প্রার্থী মংহলাচিং সাথে বুঝাপড়া করে নেয়ার জন্য তার আত্মীয় ও সমর্থকেরা আপ্রাণ প্রচেষ্টা চালাচ্ছে বলে জানা গেছে।

সহকারী রিটার্নিং কার্যালয় সূত্র জানায়, পাইন্দু ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের নারী-পুরুষ মোট ৪৪২ জন। তার মধ্যে নারী ভোটার ২১৬ জন ও পুরুষ ভোটার ২২৬ জন।

সূত্রমতে, নির্বাচন কমিশনের তৃতীয় ধাপে ঘোষিত তফশীলের তারিখ অনুযায়ী রুমা উপজেলায় আগামি ২৮ নভেম্বর চারটি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।