প্রার্থীদের কাছে যে প্রত্যাশা করেন বান্দরবানের ভোটাররা

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে ঘিরে বান্দরবান আসনের প্রার্থীরা যাচ্ছেন ভোটারদের দূয়ারে দূয়ারে। বিরামহীন প্রচার প্রচারনায় কেউ বিগত দিনের উন্নয়নের ফিরিস্থি তুলে ধরে ভোট প্রার্থনা করছেন, কেউবা আগামী দিনে উন্নয়ন করার অঙ্গিকার করে ভোট প্রার্থনা করছেন। কিন্তু জেলার ভোটারদের দাবী যেই নির্বাচিত হোক যাতে জেলার শিক্ষা,স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করা হয়, অর্থনৈতিক উন্নয়নের পাশাপাশি জেলার ক্রিড়া ও সাংস্কৃতিক অঙ্গনে আরো সুদিন ফিরুক,বাঁচুক জেলার প্রাকৃতিক পরিবেশ।
এই ব্যাপারে জেলার হোটেল মোটেল মালিক সমিতির নেতা সিরাজুল ইসলাম দৈনিক আজাদীকে বলেন, এখানকার বসবাসরত জনগোষ্ঠির বিশাল অংশ পর্যটন শিল্পের উপর নির্ভরশীল। আমাদের প্রত্যাশা পর্যটন শিল্পের বিকাশে নির্বাচিত প্রতিনিধি আরো পদক্ষেপ নিবে।
বান্দরবান জাতীয় দলের ফুটবল খেলোয়াড় তৌহিদুর রহমান সোহেল বলেন, আমাদের বান্দরবানে একটি ক্রিড়া কমপ্লেক্স করার পদক্ষেপ নিবে, এই ক্রিড়া কমপ্লেক্সের মাধ্যমে আমাদের এখানের প্রতিভা যাতে জাতীয় পর্যায়ে অবদান রাখে সেই প্রত্যাশা করি।
জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ সভাপতি সম্পাদক রাজেশ দাশ দৈনিক আজাদীকে বলেন, বান্দরবানসহ পার্বত্য এলাকায় অবৈধভাবে যে পাথর উত্তোলন হচ্ছে,গাছ কাটা হচ্ছে সেই ব্যাপারে পদক্ষেপ গ্রহন করবে,যাতে আমাদের প্রাকৃতিক পরিবেশ রক্ষা পায়।
জেলার স্বাস্থ্য সেবার মান উন্নয়নের প্রত্যাশা নিয়ে জেলার সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব হিল্লোল দত্ত বলেন, জেলার ৭টি উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সগুলোতে চিকিৎসকরা নিয়মিত থাকেন না, আমরা জোর দাবী জানায় যে নির্বাচিত হোক না কেন, যাতে চিকিৎসা সেবার উন্নয়নে আরো পদক্ষেপ গ্রহন করা হয়।
জেলার রোয়াংছড়ি উপজেলার বাসিন্দা থোয়াইনু মং মার্মা বলেন, জেলার অনাচে কানাচে সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থার অনেক উন্নয়ন হয়েছে, আমরা চাই আগামীতে যারাই ক্ষমতায় আসুক এই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রেখে বান্দরবানকে আধুনিক জেলা হিসাবে গড়ে তুলবে।
জেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, এই আসনে মোট ভোটার ২ লাখ ৪৬ হাজার ৭৫৪ জন। এর মধ্যে ১ লাখ ২৮ হাজার ১৩০ জন পুরুষ ও ১ লাখ ১৮ হাজার ৭৫৪ জন নারী ভোটার। এছাড়া জেলার দূর্গম ১৪টি ভোট কেন্দ্রে নির্বাচনে ব্যবহার করা হবে হেলিকপ্টার।
প্রসঙ্গত, বান্দরবানে আসনে আওয়ামী লীগ থেকে বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি, বিএনপি থেকে সাচিং প্রু জেরী ও ইসলামী আন্দোলন থেকে শওকতুল ইসলাম নির্বাচনে প্রার্থী হলেও মূল প্রতিদ্বন্ধি¦তা হবে বীর বাহাদুর ও সাচিং প্রু জেরীর মধ্যে।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।