ফের পাহাড় ধসের ঘটনায় নিখোঁজ ব্যক্তির লাশ উদ্ধার !

বান্দরবানের রুমা-বান্দরবান সড়কের দলিয়ান পাড়ার পার্শ্বের ঝিরি থেকে একটি লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ সোমবার দুপুর তিনটার দিকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। ধারনা করা হচ্ছে, গত ২৩ জুলাই বান্দরবানের রুমা সড়কের দলিয়ান পাড়ায় পাহাড় ধসে নিখোঁজ ব্যক্তির লাশ হতে পারে।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, রুমা-বান্দরবান সড়কের দৌলিয়ান পাড়ার পার্শ্বের ঝিরি থেকে গলিত এক পুরুষের লাশটি উদ্ধারের পর পুলিশ লাশ সনাক্তে পাহাড় ধসের নিখোঁজদের স্বজনদের খবর পাঠিয়েছে। এদিকে লাশ উদ্ধারের খবর পাওয়ার পর কুমিল্লা থেকে বান্দরবানের উদ্দ্যেশে রওনা দিয়েছে রুমা ডাকঘরের পোষ্ট মাষ্টার জবিউল আলম এর সন্তান শামীম রেজা।
শামীম রেজা পাহাড়বার্তা’কে বলেন, আমি এখন বান্দরবানের পথে, লাশটি আমার বাবার কিনা সনাক্ত করতে বান্দরবানে যাচ্ছি।
পোষ্ট মাষ্টার জবিউল আলম এর পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, পোষ্ট মাষ্টার জবিউল আলম এর লাশ না পাওয়ার কারনে গত শুক্রবার গায়েবানা জানাজা পড়েছে স্বজনরা। জবিউল আলমের গ্রামের বাড়ি ব্রাক্ষনবাড়িয়ার কসবা উপজেলায় হলেও স্ত্রী ও চার ছেলে এবং ১ মেয়েকে নিয়ে বসবাস করতেন কুমিল্লার রাজগঞ্জে। ঘটনা শুনার পর গত ২৩ তারিখ ছেলে শামীম রেজাসহ ৪জন বান্দরবানে লাশের সন্ধানে আসলেও গত বৃহস্পতিবার তারা লাশ না পেয়ে ফিরে যান খালি হাতে। আর এরপর থেকে মর্মান্তিক এই ঘটনায় পরিবারের কারো যেন কান্না থামছেনা।
এদিকে জেলার রোয়াংছড়ি থানার উপ পরিদর্শক মো : মনির হোসেন পাহাড়বার্তা’কে বলেন, লাশটি সনাক্ত করতে পারলে পরিবারের কাছে বুঝিয়ে দেবার সব ধরণের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।
পাহাড় ধসে নিখোঁজ থাকা চারজনের মধ্যে গত সোমবার সকালে চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার সাঙ্গুনদীতে ভাসমান অবস্থায় থাকা রুমা উপজেলার পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের অফিস সহকারী মুন্নি বড়ুয়ার লাশ উদ্ধার করে স্থানীয়রা। পরে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করে। মুন্নির লাশ বান্দরবানের সাঙ্গু নদী দিয়ে ভেসে বাঁশখালীর সাঙ্গু নদীতে চলে যায়। পরে স্বজনরা চট্টগ্রামে মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে লাশ সনাক্ত করে বান্দরবানে নিয়ে আসে। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জেলার রোয়াংছড়ি উপজেলার বেতছড়া এলাকার সাঙ্গুনদীর চর থেকে মাটিতে চাপা পড়া অবস্থায় রুমার কৃষি ব্যাংক কর্মকর্তা গৌতম নন্দীর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।
প্রসঙ্গত,গত রোববার সকালে বান্দরবান রুমা সড়কের দলিয়ান পাড়া এলাকায় পাহাড় ধসের ঘটনায় এখনও নিখোঁজ রয়েছে জেলার রুমা উপজেলার সিংমেচিং মার্মা ও রুমা ডাকঘরের পোষ্ট মাষ্টার জবিউল আলম।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।