বঙ্গবন্ধুর পলাতক খুনিদের ফাঁসির দাবিতে লামা-আলীকদমে ছাত্রলীগের মানববন্ধন

বঙ্গবন্ধুর পলাতক খুনিদের ফাঁসির দাবিতে লামায় ছাত্রলীগের মানববন্ধন
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুুুজিবুুর রহমানের পলাতক খুনিদের দেশে ফিরিয়ে আনা ও দন্ডপ্রাপ্তদের ফাঁসির দাবিতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে স্মারকলিপি দিয়েছে বান্দরবানের লামা উপজেলা ছাত্রলীগ।
রবিবার দুপুরে লামার মাতামুহুরী কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি সাদ্দাম আহমদের নেতৃত্বে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা খিনওয়ান নু’র মাধ্যমে এ স্মারকলিপি দেয়া হয়। এর আগে উপজেলা পরিষদ সম্মুখ সড়কে মানববন্ধনে শত শত ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা অংশগ্রহন করেন। এতে উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা জামাল, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক থুইনু মং মার্মা,লামা কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি সাদ্দাম আহমদ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।
এদিকে একই দাবিতে পৃৃথকভাবে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বরাবরে স্মারকলিপি ও মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করে আলীকদম উপজেলা ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। স্মারকলিপিতে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে উল্লেখ করা হয়, দন্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামিদের ফাঁসি হয়ে যাওয়ার ৭ বছর পরও অন্যদের দেশে ফিরিয়ে আনতে না পারায় সমগ্র জাতির মতোই ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরাও হতাশ ও চিন্তিত। তাই জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমানসহ তাঁর পরিবারের অন্য সদস্যদের খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে ফাঁসির মঞ্চে তুলে খুনের রাজনীতি বন্ধে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করবে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।
বঙ্গবন্ধুর পলাতক খুনিদের ফাঁসির দাবিতে আলীকদমে ছাত্রলীগের মানববন্ধন
মৃত্যুদন্ড পাওয়া পলাতক সাত আসামির মধ্যে অবসরপ্রাপ্ত লে. কর্নেল আজিজ পাশা জিম্বাবুয়েতে অবস্থান করার সময় মারা গেছেন। বাকি ছয় জনের মধ্যে অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা লে. কর্নেল খন্দকার আব্দুর রশিদ পাকিস্তানে, লে. কর্নেল নূর চৌধুরী ও লে. কর্নেল শরিফুল হক ডালিম কানাডায় এবং রিসালদার মোসলেউদ্দিন থাইল্যান্ডে, লে. কর্নেল এমএ রাশেদ চৌধুরী আফ্রিকায় এবং অবসরপ্রাপ্ত ক্যাপ্টেন আবদুল মাজেদ কেনিয়ায় অবস্থান করছেন বলে জানা গেছে।
প্রসঙ্গত: ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ধানমন্ডির ৩২ নাম্বার বাড়িতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের অন্য সদস্যরা নির্মম হত্যাকান্ডের শিকার হন।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।