বঙ্গবন্ধু মাউন্টেন বাইক চ্যালেঞ্জে অংশ নিচ্ছে দেশের ১০০ ক্রীড়া প্রেমী

পার্বত্য জেলায় শুরু হচ্ছে বঙ্গবন্ধু ট্যুর ডি সিএইচটি এমটিবি চ্যালেঞ্জ । তিন পার্বত্য জেলা থেকে ৪৫ (পঁয়তাল্লিশ) জন এবং দেশের অন্যান্য জেলা থেকে ৫৫ জনসহ সর্বমোট ১০০ জন ক্রীড়াপ্রেমী সাইক্লিস্টস এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করবেন।

আজ বুধবার (২৩ ডিসেম্বর) বেলা তিনটায় পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের প্রধান কার্যালয় রাঙামাটিস্থ কর্ণফুলী সম্মেলন কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানানো হয় ।

পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ নূরুল আলম নিজামী (অতিরিক্ত সচিব) এর সভাপতিত্বে এ সময় পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের সদস্য প্রশাসন ও সদস্য সচিব আশীষ কুমার বড়ুয়া (যুগ্মসচিব), সদস্য পরিকল্পনা ড. প্রকাশ কান্তি চৌধুরী (উপ-সচিব), সদস্য বাস্তবায়ন মোহাম্মদ হারুন-অর-রশীদ (উপসচিব) সহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ার কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন ।

আয়োজকরা জানান, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনে পাহাড়ে নতুন মাত্রা সংযোজন, পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলে অ্যাডভেঞ্চার ক্রীড়া পর্যটনকে অগ্রসর করা,স্থানীয় জনগোষ্ঠীকে মাউন্টেইন বাইকের সাথে পরিচিতকরণ, আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের সুযোগ সৃষ্টি করা, নতুন প্রজন্মকে শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্য বিকাশে সক্ষমতা বৃদ্ধি, নিরাপদ ও টেকসই বাহন হিসেবে মাউন্টেন বাইককে পরিচিতকরণ,পরিবেশ বান্ধব ও সাশ্রয়ী বাহন হিসেবে মাউন্টেন বাইক এর প্রচলন, মাদকমুক্ত সমাজ গড়াই এর উদ্দেশ্যে ।

এদিকে উদ্বোধনী অনুুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকতে পারেন তথ্য মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এমপি। আর সমাপনী অনুুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে বলে জানিয়েছেন পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের জনসংযোগ কর্মকর্তা (অঃদাঃ) কাইংওয়াই ম্রো ।

প্রথম ধাপে আগামী ২৮ ডিসেম্বর সকাল ৮টায় পর্যটনকেন্দ্র সাজেকে উদ্বোধন করা হবে এই প্রতিযোগিতার । পরে সাজেক থেকে চিং হ্লা মং চৌধুরী মারী স্টেডিয়ামের উদ্দেশ্যে রওনা হবেন প্রতিযোগিরা ।

আর ২৯ ডিসেম্বর দ্বিতীয় দিন রাঙ্গামাটি চিং হ্লা মং চৌধুরী মারী স্টেডিয়াম থেকে বান্দরবান স্টেডিয়ামের উদ্দেশ্যে রওনা হবেন প্রতিযোগিরা ।

সর্বশেষ তৃতীয় দিন ৩০ ডিসেম্বর সকাল ৮টায় বান্দরবান স্টেডিয়াম থেকে থানচি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠের উদ্দেশ্যে রওনা হবেন প্রতিযোগিরা । ওই দিন বান্দরবান পার্বত্য জেলার থানচি উপজেলার থানচি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে বিজয়ীদের মাঝে তুলে দেয়া হবে পুরস্কার ।

পুরস্কার হিসেবে চ্যাম্পিয়ন প্রতিযোগিকে দেয়া হবে ৩ লক্ষ টাকা। এছাড়াও প্রথম রানারআপ ২ লক্ষ টাকা, দ্বিতীয় রানারআপ ১ লক্ষ টাকা এবং বিশেষ পুরস্কার হিসেবে থাকবে ১ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা ঘোষণা করা হয়েছে ।

এছাড়াও সফল প্রতিযোগীদের সবাইকে-সার্টিফিকেট, মেডেল/ক্রেস্ট প্রদান করা হবে বলে জানান আয়োজকরা ।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।