বদলে যাচ্ছে বান্দরবানের নীলাচল পর্যটন স্পট

করোনা মানুষের পদচারনা বন্ধ থাকায় বান্দরবানের অন্যতম পর্যটন স্পট নীলাচলে বৃক্ষে এসেছে নতুন কলি, প্রকৃতিতে এসেছে পরিবর্তন। নীলাচলের চারদিকে শুধু সবুজেরই সমারোহ, সতেজতা পরিপূর্ণ পরিবেশ আর বিশুদ্ধ বাতাসের যেন উপযুক্ত স্থান। পাহাড়ি প্রকৃতিতে ফিরেছে সেই আগের রূপ। সবুজ হয়েছে নানা প্রান্তর, নিরিবিলি পরিবেশ তৈরী করেছে অনন্য পরিবেশ।

করোনা ভাইরাস সংক্রমণের কারণে গত প্রায় পাঁচ মাস ধরে বন্ধ নীলাচল পর্যটন স্পট। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেই খোলা হবে এটি। তবে এ সময়ের মধ্যে দৃশ্যমান পরিবর্তন হয়েছে পুরো নীলাচলে, স্পটটির প্রাঙ্গন যেন এখন সবুজ গালিচায় আচ্ছাদিত।

বান্দরবান নীলাচলের ম্যানেজার আরিফুল ইসলাম বলেন, করোনা কালে গত পাঁচ মাস ধরে পর্যটন স্পটিতে আমরা অনেক কাজ করেছি, বেঞ্জ গুলো রং করেছি, বিভিন্ন ভিউ পয়েন্ট তৈরি করেছি, যাতে পর্যটকরা আরো বেশি বিনোদন পাবে বলে আশা করি।

নিলাচলে বসবাসকারী দোকানদার জেকি তংচঙ্গ্যা বলেন, এই করোনা সময়ে আজ অনেকদিন দোকান বন্ধ, প্রশাসনের সাহায্য সহযোগিতায় কোন ভাবে দিন পার করছি।

জানা যায়,নীলাচল বাংলাদেশের বান্দরবান জেলায় অন্যতম দর্শনীয় স্থান। এখানে নীলাচল পর্যটন কমপ্লেক্স বান্দরবান জেলা প্রশাসনের তত্তাবধানে বান্দরবান শহর থেকে প্রায় ছয় কিলোমিটার দূরে টাইগারপাড়ার পাহাড় চূড়ায় গড়ে তোলা হয়েছে আকর্ষণীয় এই পর্যটন কেন্দ্র।

নীলাচলকে বাংলার দার্জিলিং বলা হয়, এর রুপের সৌন্দর্য এর কারনে। ২০০৬ সালের পহেলা জানুয়ারি এই প্রকল্প উদ্বোধন করা হয়। এ প্রকল্পে রয়েছে শুভ্রনীলা,‘ঝুলন্ত নীলা’, ‘নীহারিকা’ এবং ‘ভ্যালেন্টাইন পয়েন্ট’ নামে পর্যটকদের জন্য আকর্ষনীয় বিশ্রামাগার তৈরী করা হয়। কমপ্লেক্সের মাঝে বাচ্চাদের খেলাধুলার ব্যবস্থা এবং বসার ব্যবস্থা রয়েছে।

পাহাড়ের ঢালে ঢালে সাজানো হয়েছে এ জায়গাগুলো। ভিন্ন ভিন্ন জায়গা থেকে সামনের পাহাড়ের দৃশ্যও ভিন্ন ভিন্ন ধরণের। একটি থেকে আরেকটি একেবারেই আলাদা, স্বতন্ত্র। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ১৬শ’ ফুট উঁচু এই জায়গায় বর্ষা, শরৎ কি হেমন্ত এই তিন ঋতুতে ছোঁয়া যায় মেঘ।
বান্দরবান অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক শামীম হোসেন বলেন, ‘করোনা কালে নীলাচল বন্ধ থাকায় পুরো আঙিনা সবুজে স্নিগ্ধ রূপ নিয়েছে। বৃক্ষ মেলেছে নতুন ডালপালা। সামগ্রিক প্রেক্ষাপটে অনেকটা নতুনত্ব রূপ নিয়েছে পর্যটন স্পটটি।

তিনি আরো বলেন,পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে পর্যটকরা নতুন রূপে নীলাচলকে অবলোকন করতে পারবেন।

নীলাচল থেকে সমগ্র বান্দরবান শহর একনজরে দেখা যায়। নীলাচলে বাড়তি আকর্ষণ হচ্ছে এখানকার নীল রং এর রিসোর্ট। নাম নীলাচল স্কেপ রিসোর্ট। সাধারণ পর্যটকদের জন্য এ জায়গায় সূর্যাস্ত পর্যন্ত অনুমতি আছে। দৃষ্টিনন্দন করা হয়েছে অভ্যন্তরীণ পথগুলো।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।