বন্ধ পর্যটন, বেকার পর্যটকবাহী যানবাহন চালক-শ্রমিক

করোনার লক ডাউনের কারনে পর্যটনকেন্দ্র বন্ধ থাকায় বান্দরবানের শত শত পর্যটকবাহী যানবাহনের চালক ও শ্রমিক বেকার হয়ে পড়ছে। আয় রোজগার বন্ধ থাকায় অনিশ্চয়ত হয়ে পড়েছে জীবন যাপন।

ট্যুরিস্ট শ্রমিকরা জানান, প্রায় এক মাসেরও বেশি সময় ধরে গাড়ীর চাকা বন্ধ রয়েছে। তাই আয় রোজগারও বন্ধ। পরিবার নিয়ে অনেক কষ্টে আছি। ধার করে পরিবারের ভরণ পোষণ চালাতে হচ্ছে।

শ্রমিকেরা আরো জানান, গত বছরের লকডাউনে প্রচুর ত্রাণ সহযোগিতা পেলেও এই বছর খুবই কম। তবে শ্রমিকদের জন্য খাদ্য সহায়তা জরুরী হয়ে পড়ছে।

বান্দরবান ট্যুরিস্ট পরিবহন মালিক সমিতি সভাপতি মোজাম্মেল হক বাহাদুর বলেন, দীর্ঘদিন ধরে ট্যুরিস্ট পরিবহন সেক্টরের গাড়ীগুলো বন্ধ রয়েছে। শ্রমিকদের গাড়ির চাকা ঘুড়লে তাদের আয় রোজগার হয়। তবে সরকারীভাবে শ্রমিকদের জন্য রেশন কার্ডের ব্যবস্থা করা হলে শ্রমিকেরা উপকৃত হবে।

জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি বলেন, করোনা ভাইরাসে বিভিন্ন দেশে অসংখ্য মানুষ প্রাণ হারিয়েছে, হারাচ্ছে। আমাদের দেশেও ইতোমধ্যে এই ভাইরাসটিতে অনেকই আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছে। তবে মরণঘাতী এই ভাইরাস প্রতিরোধের একমাত্র উপায় হচ্ছে সচেতনতা। তাই দেশ ও জনগণের স্বার্থে সরকারের সিদ্ধান্ত মেনে চলতে হবে, যাতে করে এ ভাইরাস দেশব্যাপী ছড়িয়ে না পড়ে। এই ভয়াবহ পরিস্থিতি থেকে উত্তরণের জন্য সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে প্রশাসন পর্যটক ভ্রমণে সাময়িক পর্যটন কেন্দ্রগুলো বন্ধ করে দিয়েছে।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।