বান্দরবানের একজন পুলিশ সুপার শম্পা রাণী সাহা’র কথা

বিচারপ্রার্থী নারীদের সাথে জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) শম্পা রাণী সাহা
বান্দরবানের ইভটিজিং নির্মূল,বাল্য বিবাহ রোধ ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধে জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) শম্পা রাণী সাহা’র ভূমিকা ইতিমধ্যে বান্দরবানের স্থানীয়দের কাছে প্রশংসিত।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বান্দরবানের কর্মস্থলে যোগদানের জন সম্পৃক্ত বিভিন্ন কৌশল অবলম্বনের মাধ্যমে জেলার প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের গেইটে ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আসা যাওয়ার রাস্তায় কড়া নজরদারী করতেন, কোন যুবক কোন মেয়েকে ইভটিজিং করছে কিনা? কোথাও কোন সমস্যা হচ্ছে কিনা। এই ধরণের কাউকে সন্দেহজনক দেখলে সাথে সাথে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করার কারনে ইভটিজিং বর্তমানে বান্দরবানে অনেকটাই কমে গেছে।
আরো জানা গেছে, ইতিমধ্যে তিনি বেশ কয়েকটি বাল্যবিবাহ বন্ধ করতে সক্ষম হয়েছেন। বাল্য বিবাহ রোধে তার ভূমিকা অপরিসীম। নারী ও শিশু নির্যাতনের খবর পাওয়ার সাথে সাথে ঘটনাস্থলে তিনি ছূটে যান এবং সেখানে গিয়ে প্রকৃত অপরাধীদের আইনের আওতায় এনে অতি দ্রæত নির্যাতিতদের সেবা প্রদান করে থাকেন। তিনি বান্দরবানে যোগদানের পর তার দূরদর্শী বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণের পর থেকে জেলায় নারী ও শিশু নির্যাতন প্রায় ৯০% কমে গেছে।
একান্ত সাক্ষাৎকারে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(সদর সার্কেল) শম্পা রাণী সাহা বলেন,আমার ফোন নাম্বার জেলার প্রতিটি ইউনিয়নের অধিকাংশ নারী ও স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীদের নিকট রয়েছে। আমার নিকট যে কেউ ফোন করে বা ম্যাসেজ করে যে কোন অপরাধের তথ্য পাঠালে আমি তরিৎ গতিতে আইনী পদক্ষেপ গ্রহণ করে থাকি। তিনি আরো বলেন, আমার ফোন চব্বিশ ঘন্টা খোলা, আর আমার এই সার্কেল অফিস গরীব ও নির্যাতিতা নারী ও শিশুদের অফিস।
তিনি আরো বলেন, আমি ও আমার পুলিশ বাহিনী জনগনের জান-মালের নিরাপত্তা দিতে চব্বিশ ঘন্টায় সর্বোচ্চ সেবা দিতে প্রস্তুুত রয়েছে। সমাজের সচেতন নাগরিক,সাংবাদিক,পুলিশকে যথা সময়ে সঠিক তথ্য প্রদান করে সাহায্য করলে পুলিশ বাহিনী আরো বেশী জনগনের সেবা প্রদান করতে ও দেশের আইন-শৃ্খংলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে সক্ষম হবে।
জেলা শহরের নিউগুলশান এলাকার বাসিন্দা মো: রশিদ আহম্মেদ বলেন, দীর্ঘ প্রায় ১০ বছর ধরে ভূমি নিয়ে আমাদের পরিবারের মধ্যে বিরোধ ছিল, সদর সার্কেল এর ন্যায় পরায়নতার কারনে আমাদের পারিবারিক সমস্যাটি নিরসন হয়েছে।

আরও পড়ুন
3 মন্তব্য
  1. Achoma Newar বলেছেন

    Thanks .

  2. Khan Md Sarowar Foysal বলেছেন

    উনি তো পুলিশ সুপার নয়, অতি: পুলিশ সুপার!!!

  3. Nepa Aktar বলেছেন

    Nice

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।