বান্দরবানের গরুর হাটে জাল টাকা ধরতে তৎপর পুলিশ

poliবান্দরবানে পবিত্র ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষে কোরবানীর পশু বিক্রির হাটে জাল টাকা রুখতে ব্যবস্থা নিচ্ছে পুলিশ। এর অংশ হিসাবে গরু বিক্রির প্রতিটি হাটে জাল টাকা চেকের মেশিন, পুলিশ কন্ট্রোল রুম ও পুলিশ সদস্য মোতায়েন করা হচ্ছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় সদর থানা কমিউনিটি পুলিশিং এর উদ্যোগে সদর থানা প্রাঙ্গনে কোরবানী পশুর হাট ইজারাদার বাজার কমিটি, গরু, ছাগল ব্যবসায়ীদের সাথে মতবিনিময় ও আলোচনা সভায় সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) রাশেদুল হক চৌধুরী এসব কথা বলেন।
বান্দরবান সদর থানা সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার সন্ধ্যায় সদর থানা প্রাঙ্গনে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রফিক উল্লাহ সভাপতিত্বে উক্ত মতবিনিময় ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) রাশেদুল হক চৌধুরী।
সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার রাশেদুল হক চৌধুরী উক্ত আলোচনা সভায় গরুর হাটের ইজারাদারদের সাথে কোরবানী পশুর হাট সম্পর্কে বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করেন। দালালদের উৎপাতের কারণে যাতে সাধারণ ক্রেতাগণ হয়রানির শিকার না হয় সে দিকে লক্ষ্য রাখার জন্য ইজারাদারদের অনুরোধ করেন।
এসময় তিনি কোরবানীর পশুর বিভিন্ন বর্জ্য ও ময়লা আবর্জনা ফেলার জন্য নির্দিষ্ট স্থান ব্যবহার, কোরবানী পশুর হাটে আইন শৃঙ্খলা ও নিরাপত্তা রক্ষার্থে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করার জন্য অনুরোধ করেন। বান্দরবানের বাইরের স্থান থেকে আসা পাইকারী গরু-ছাগল ক্রেতারা যাতে কোন ধরণের হয়রানির শিকার না হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখতে ইজারাদার ও ব্যবসায়িদের অনুরোধ করেন।
তিনি আরো বলেন, কোরবানী পশুর হাট একটি আনন্দ মেলা। উক্ত আনন্দ মেলায় যেন কোন প্রকার অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সেদিকে সবাইকে সতর্ক দৃষ্টি রাখতে হবে।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।