বান্দরবানের রাজগুরু বৌদ্ধ বিহারের কঠিন চীবর দানোৎসব অনুষ্ঠিত

যথাযথ ও ধর্মীয় অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে বান্দরবানের (খ্যংওয়াক্যং) রাজগুরু বৌদ্ধ বিহারে টাট্কা চীবর বুনন ও সার্বজনীন দানোত্তম শুভ কঠিন চীবর দানোৎসব উদ্যাপিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৮ নভেম্বর) সকাল থেকে নানা আয়োজনে বৌদ্ধ বিহারের দায়ক-দায়িকা ও সেবক সংঘের আয়োজনে বিহার প্রাঙ্গনে এই দানোত্তম শুভ কঠিন চীবর দানোৎসব অনুষ্ঠিত হয়।

কঠিন চীবর দানোৎসব উপলক্ষে প্রথমেই জাতীয় ও ধর্মীয় পতাকা উত্তোলন ও একটি মঙ্গল শোভাযাত্রা বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে বিহার প্রাঙ্গনে এসে সমবেত হয়। পরে মঙ্গলসুত্র পাঠ এর মাধ্যমে পূজনীয় ভিক্ষুসংঘের পিন্ডচরণ অনুষ্ঠান অনুষ্টিত হয়, এর পরপরই পঞ্চশীল প্রার্থনা, সদ্ধর্ম দেশনা, অষ্ট পরিষ্কারদান ও মহাসংঘদান অনুষ্টিত হয়।

এসময় উজানীপাড়া রাজগুরু মহা বৌদ্ধ বিহারের বিহারাধ্যক্ষ ড.সুবন্নলংকারা মহাথের উপস্থিত থেকে পঞ্চশীল ও অষ্টশীল প্রার্থনা প্রদান করেন। অনুষ্ঠানে কাইন্তারমুখ পাড়া বৌদ্ধ বিহারের বিহারাধ্যক্ষ উপ সংঘরাজ ভদন্ত মিহিন্দা মহাথের, খ্যংওয়াক্যং রাজগুরু বৌদ্ধ বিহারের বিহারাধ্যক্ষ ভদন্ত কেতু মহাথের, বোমাং সার্কেলের রাজা উচপ্রু, রাজকুমার মংওয়ে প্রু, রাজকুমার নুশৈ প্রু, পার্বত্য জেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মংক্যচিং চৌধুরী, ৫নং ওয়ার্ড পৌর কাউন্সিলর মং মং সিং সহ বিভিন্ন বিহারের বিহারাধ্যক্ষ, উপাসক-উপাসিকা ও দায়ক-দায়িকারা উপস্থিত ছিলেন।

মূলত প্রবারণা পূর্ণিমা উদযাপনের পরদিন থেকেই মাসব্যাপী বৌদ্ধ ধর্মালম্বীরা বিভিন্ন বিহারে বিহারে এই কঠিন চীবরদান অনুষ্ঠান উদযাপন করে থাকে আর এই কঠিন চীরব দানের মধ্য দিয়ে পরিবার ও দেশের মঙ্গল প্রার্থনা করে দায়ক-দায়িকারা।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।