বান্দরবানের রাজবিলা থেকে স্কুল ছাত্রী অপহরণ

বান্দরবান পার্বত্য জেলার রাজবিলা ইউনিয়ন থেকে এক স্কুল ছাত্রীকে অপহরণ করা হয়েছে। গত ৯ সেপ্টেম্বর রাজবিলা ইউনিয়নের ওমেনু চিং মাষ্টারের বাড়ি থেকে তাকে অপহরণ করা হয়।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, জেলার রাজবিলা ইউনিয়নের পূনবার্সন পাড়ার সাউ খই মার্মার মেয়ে ম্যাখাই উ মার্মা উদালবুনিয়ার হ্যাডম্যান পাড়ার ওয়েনু চিং মাষ্টারের বাড়িতে গত ১ বছর ধরে থেকে রাজবিলা উচ্চ বিদ্যালয়ে অধ্যায়ন করতো। এসময় চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার পদুয়া ইউনিয়নের আব্দুর রশিদের পুত্র দিদারুল আলম প্রেমের প্রস্তাবসহ বিবাহ করার জন্য বিরক্ত করতো। বিষয়টি স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিদের জানানো হলে এই ব্যাপারে দিদারুল আলমকে সতর্ক করে দেওয়া হয়।
আরো জানা গেছে,এতে ক্ষুদ্ধ হয়ে ম্যাখাই উ মার্মা কে গত ৯ অক্টোবার বাসা থেকে একবার অপহরণের চেষ্টা করা হলে ম্যাখাই উ মার্মা চিৎকার করলে অভিযুক্তরা পালিয়ে যায়। এর একদিন পর ১০ অক্টোবর ভোররাতে দিদারুলসহ তিন-চার জনের একটি দল ওয়েনু চিং মাষ্টারের বাসা থেকে জোরপূর্বক অপহরণ করে সিএনজিতে তুলে নিয়ে যাওয়া হয় এই স্কুলছাত্রীকে। এই ব্যাপারে ম্যাখাই উ মার্মার মা গতকাল শনিবার বান্দরবান সদর থানায় নারীও শিশু নির্যাতন আইনে একটি মামলা দায়ের করলেও পুলিশ অভিযুক্তকে আটক এবং ম্যাখাই উ মার্মাকে উদ্ধার করতে পারেনি।
এই ব্যাপারে মামলার তদন্ত্র কর্মকর্তা আব্দুল জলিল পাহাড়বার্তাকে বলেন, আমরা তদন্ত্র করছি, দুই একদিনের মধ্যে একটি ভালো খবর দিতে পারবো বলে মনে করছি।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।