বান্দরবানের রুমায় বনের ভেতর পাহাড় কেটে ইটভাটা !

বান্দরবানের রুমায় বড়শি পাড়া ঘেঁসে বনের ভেতর পাহাড় কেটে তৈরী করা হচ্ছে অবৈধ ইটভাটা
বান্দরবানের রুমায় বড়শি পাড়া ঘেঁসে বনের ভেতর পাহাড় কেটে তৈরী করা হচ্ছে অবৈধ ইটভাটা
বান্দরবানের রুমা উপজেলায় বড়শি পাড়া ঘেঁসে বনের ভেতর পাহাড় কেটে অবৈধভাবে ইটভাটা গড়ে তোলার প্রস্তুতি চলছে। প্রশাসনের নিস্ক্রিয়তার সুযোগে পরিবেশ ধ্বংস করে ইটভাটার প্রস্তুতিমুলক কাজের জন্যে প্রকাশ্যেই পাহাড় কেটে সাবাড় করা হলেও প্রশাসনের নেই কোন কার্যকর পদক্ষেপ, এমন অভিযোগ স্থানীয়দের।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, জেলা শহরের ঠিকাদার আনিসুর রহমান সুজন স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতার নাম ভাঙ্গিয়ে এই অবৈধ ইটভাটা গড়ে তুলতে পাহাড় কাটছে বলে অভিযোগ করেছেন স্থানীয়রা। আর এই ইটভাটা তৈরীর জন্য নেই কোন প্রশাসনের অনুমতি কিংবা পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র।
বান্দরবানের রুমায় বড়শি পাড়া ঘেঁসে বনের ভেতর পাহাড় কেটে তৈরী অবৈধ ইটভাটায় বনের কাঠ মজুদ
বান্দরবানের রুমায় বড়শি পাড়া ঘেঁসে বনের ভেতর পাহাড় কেটে তৈরী অবৈধ ইটভাটায় বনের কাঠ মজুদ
সরেজমিনে পরিদর্শনে দেখা যায়, রুমা সদর থেকে প্রায় দুই কিলোমিটার দূরে অবস্থিত বগালেকে যাবার পথে বড়শি পাড়ার নিকটে স্থাপিত হচ্ছে অবৈধ ইটভাটাটি। তিনটি বুলড্রোজার ও একটি স্কেভেটর (পাহাড় কাটার কাজে ব্যবহৃত ভারী যন্ত্র ) দিয়ে পাহাড় কেটে চলছে ইটভাটা তৈরীর প্রস্তুতি। গত ২/৩ মাস ধরে প্রকাশ্যে দিবালোকে পাহাড় কাটা চলে আসলেও পুলিশ ও প্রশাসন রয়েছে নির্বিকার।
ইটভাটায় পাহাড় কাটা ও ভাটা প্রস্তুতি কাজের দায়িত্বে থাকা প্রকৃতি বড়ুয়া জানান, ইটভাটার মালিক আনিসুর রহমান সুজন, ইটভাটা স্থাপনে বৈধ কাগজ পত্র বা পরিবেশ অধিদপ্তরের অনুমতি আছে কিনা জানতে চাইলে এবিষয়ে কিছুই বলতে রাজি হননি।
আরো জানা গেছে, ইট ভাটাটি ড্রাম দিয়ে অস্থায়ী চিমনী ব্যবহার করে তৈরী করা হবে ইট, যা বর্তমানে নিষিদ্ধ। ইট তৈরীর পূর্ব প্রস্তুতি হিসাবে মজুদ করা হচ্ছে বন উজার করে জ্বালানী কাঠও। ভাটাটির পাশে বনাঞ্চল বলতে অবশিষ্ট আর কিছুই নেই, বনাঞ্চলের কাঠ ইট ভাটার জ্বালানি হিসাবে ব্যবহার করার জন্য সংগ্রহ করার ফলে ন্যাড়া হয়ে গেছে এক সময়ের ঘন বনে সমৃদ্ধ পাহাড়গুলো।
বান্দরবানের রুমায় বড়শি পাড়া ঘেঁসে বনের ভেতর পাহাড় কেটে তৈরী করা হচ্ছে অবৈধ ইটভাটা
বান্দরবানের রুমায় বড়শি পাড়া ঘেঁসে বনের ভেতর পাহাড় কেটে তৈরী করা হচ্ছে অবৈধ ইটভাটা
রুমা উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি শৈহ্লাচিং মারমা জানান, প্রভাবশালী রাজনৈতিক নেতারাই বড়শি পাড়া ঘেঁসে অবৈধভাবে ইটভাটা স্থাপন করেছে। ইটভাটার কালো ধোঁয়্য়া বড়শি পাড়ার বাসিন্দারাসহ অনেক শিশুর স্বাস্থ্য ঝুঁকি বাড়বে।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত মাসে উপজেলার মাসিক সভায় অবৈধভাবে স্থাপিত এই ইটভাটা দ্রুত বন্ধের কার্যকরি ব্যবস্থা নিতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও উপজেলা চেয়ারম্যানকে অনুরোধ জানানো হয়েছে, তবে এতেও নেয়া হয়নি কোন কার্যকর পদক্ষেপ, ফলে স্থানীয়দের মাঝে দেখা দিয়েছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া।
ইটভাটার মালিক আনিসুর রহমান সুজন ইটভাটায় বুলড্রোজার দিয়ে অবৈধভাবে পাহাড় কাটা ও ভাটায় জ্বালানী কাঠ পোড়ানোর প্রস্তুতির বিষয়ে কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি।
ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন(নিয়ন্ত্রণ) আইন- ২০১৩ এ লাইসেন্স ছাড়া ইটভাটা পরিচালনা করলে এক বছরের দন্ড এবং ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, আবাসিক-সংরক্ষিত-বাণিজ্যিক-বনভূমি-জলাভূমিসহ গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা এলাকায় ইটভাটা স্থাপন করলে এক বছর দন্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানার বিধান রাখা হয়। জ্বালানি হিসেবে কাঠের ব্যবহারে তিন বছরের কারাদন্ড এবং তিন লাখ টাকা জরিমানা বা উভয় দন্ডে দন্ডিত হওয়ার বিধান রাখা হয়।
বান্দরবানের রুমায় বড়শি পাড়া ঘেঁসে বনের ভেতর পাহাড় কেটে তৈরী করা হচ্ছে অবৈধ ইটভাটা
বান্দরবানের রুমায় বড়শি পাড়া ঘেঁসে বনের ভেতর পাহাড় কেটে তৈরী করা হচ্ছে অবৈধ ইটভাটা
রুমা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ শরিফুল হক জানান, ইটভাটায় সরেজমিন পরিদর্শন করে বৈধ কাগজ পত্র কিংবা কর্তৃপক্ষের অনুমতি আছে কিনা এবং পরিবেশের ক্ষতি সাধিত হচ্ছে কিনা দেখে প্রয়োজনীয় আইনী ব্যবস্থা নেবো।
বর্তমানে দেশে কয়লার সংকট না থাকলে বান্দরবান জেলার ৭টি উপজেলার বিভিন্ন ভাটায় বছরের পর বছর ধরে কয়লার পরিবর্র্তে বনের কাঠ ব্যবহার করে আসছে ভাটাগুলো। এই ব্যাপারে যথাযথ পদক্ষেপ নেওয়া না হলে পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা করা কঠিন হয়ে পড়বে।
পরিবেশ অধিদপ্তরের চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিচালক মাসুদ করিম জানান, সরেজমিনে গিয়ে রুমার এই অবৈধভাবে স্থাপিত ইটভাটার মালিকের বিরুদ্ধে দ্রুত প্রযোজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরও পড়ুন
3 মন্তব্য
  1. Kcc Hemal বলেছেন

    ইটভাটা কি তাহলে ছাদের ওপর হবে?

    1. নিজস্ব প্রতিবেদক বলেছেন

      পার্বত্য বাণীর নিউজ এডিটর, একজন সংবাদকর্মীর মন্তব্য কি এই ধরণের হয় !

  2. ইউনুচ কে এসএ বলেছেন

    জসিম

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।