বান্দরবানের শান্তির জন্য সর্বদলীয় বৈঠক হবে : ক্য শৈ হ্লা

বান্দরবান জেলা পরিষদের হলরুমে জেলার সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভায় পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ক্য শৈ হ্লা
বান্দরবান জেলার রাজবিলা ও কুহালং ইউনিয়নে একের পর এক হত্যাকান্ডের প্রেক্ষিতে ঈদের পর জেলার শান্তির জন্য সব রাজনৈতিক দল ও সুশিল সমাজের প্রতিনিধিদের নিয়ে সর্বদলীয় বৈঠক করা হবে,এই ব্যাপারে দ্রুত উদ্দ্যেগ নেওয়া হবে। আজ বৃহস্পতিবার (৩০ মে) সকালে বান্দরবান জেলা পরিষদের হলরুমে জেলার সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভায় পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ক্য শৈ হ্লা এসব কথা বলেন।
তিনি আরো বলেন, বান্দরবানে সব রাজনৈতিক দল মিলেমিশে রাজনীতি করে, এটায় জেলার রেওয়াজ। তাই সবাইকে সচেতন থাকতে হবে,যাতে কেউ এটা নষ্ট করতে না পারে।
তিনি আরো বলেন, অনেকে ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করতে চেষ্টা করছে, না জেনে প্রমান ছাড়া কাউকে দোষ দেওয়া ঠিক নয়, আমি কোন সন্ত্রাসী কর্মকান্ডকে সমর্থন করি না, আওয়ামীলীগ সন্ত্রাসী লালন পালন করেনা।
তিনি আরো বলেন, বান্দরবানে যাতে আগামীতে সংঘাতের পরিস্থিতি তৈরী না হয় তার জন্য আমি ব্যক্তিগতভাবে অনেক চেষ্টা করে যাচ্ছি। জনসংহতির লোকজনও আমাদের ভাই। কেন তাদের হত্যা করা হবে। তবে জেএসএসকেও বলা হয়েছে চাঁদাবাজি, খুন খারাপি বন্ধ করার জন্য। আমরা কোন সন্ত্রাসী লালন পালন করি না।
তিনি আরও বলেন, একাধিক আওয়ামী লীগ নেতা হত্যার পরও জেলা আ’লীগ এখনো শান্ত,কারণ আমরা সমঝোতার মাধ্যমে শান্তি চাই। কিন্তু একটি মহল আওয়ামী লীগকে উত্তেজিত করে পরিস্থিতি ঘোলাটে করার পায়তারা করছে। অশান্তি ও সম্প্রতি যাতে নষ্ট না হয়। পাহাড়ে যাতে অস্ত্র নিয়ে রাজনীতি না হয়। এজন্য আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে দোষীদের খুঁজে বের করতে হবে।
মতবিনিময় সভায় বান্দরবান প্রেসক্লাবের সভাপতি আমিনুল ইসলাম বাচ্চু, বিটিভির জেলা প্রতিনিধি মনিরুল ইসলাম মনুসহ বিভিন্ন ইলেক্সট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।
প্রসঙ্গত, সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ক্য শৈহ্লা কে নিয়ে বিভিন্ন অপ প্রচার হওয়ার প্রেক্ষিতে এই মতবিনিময় সভার আয়োজন করেন তিনি।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।