বান্দরবানের স্কুল শিক্ষিকা রুমি বড়ুয়াকে গলা কেটে হত্যা : স্বামী গ্রেফতার

কালেক্টরেট স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষিকা রুমি বডুয়া
বান্দরবান কালেক্টরেট স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষিকা রুমি বডুয়াকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার বেতাগী ইউনিয়নের বড়ুয়া পাড়ার শ্বশুরবাড়িতে স্বামী নান্নু বড়ুয়া (রিন্টু) তাকে হত্যা করে বলে ধারণা করা হচ্ছে। আর এই ঘটনায় সেনা সদস্য স্বামী নান্নু বড়ুয়াকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে,রবিবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে রাঙ্গুনিয়া উপজেলার বেতাগী ইউনিয়নের বড়ুয়া পাড়ায় হত্যাকাণ্ডের এ ঘটনা ঘটে। নান্নু বড়ুয়া স্ত্রী রুমি বড়ুয়াকে নিয়ে গত রবিবার বিকালে বাড়িতে আসেন। রাত ১২টার দিকে রুমি বড়ুয়াকে গলাকেটে হত্যা করা হয়। পরে নান্নু বড়ুয়ার চিৎকারে আশপাশের মানুষ ঘটনাস্থলে গিয়ে রুমি বড়ুয়ার গলাকাটা লাশ দেখতে পায়। ধারণা করা হচ্ছে, পারিবারিক বিরোধের জের ধরে স্বামী নান্নু বড়ুয়া স্ত্রী রুমি বড়ুয়াকে গলা কেটে হত্যা করে।
এদিকে রাত ২টায় রাঙ্গুনিয়া থানার পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে রুমি বড়ুয়ার মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্ত্রের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এই ঘটনার পর চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপার নুরে আলম মিনা আজ সোমবার দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
রাঙ্গুনিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইমতিয়াজ মো. আহসানুল কাদের ভুঁইয়া বলেন, এই ঘটনায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে এবং ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে স্বামী নান্নু বড়ুয়াকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
প্রসঙ্গত,রুমি বড়ুয়া বান্দরবান সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক দীপ্তি কুমার বড়ুয়ার কন্যা, রুমি বান্দরবান কালেক্টরেট স্কুল এন্ড কলেজে শিক্ষক হিসাবে কর্মরত আছেন। তার মৃত্যুতে বান্দরবানে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

আরও পড়ুন
2 মন্তব্য
  1. Babul Barua বলেছেন

    রুমি বড়ুয়ার মরমানতিক মৃত্যুরজন্য শোকাহত । তার আতমার সৎ গতি কামনাকরছি। শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করছি।

  2. Jasmin Akter বলেছেন

    বুশুদি কখনো ভাবিনাই আপনি এভাবে খবরের শিরোনাম হবেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।