বান্দরবানের ৬টি উপজেলায় নির্মাণ করা হবে টিটিসি

দক্ষ কর্মী বাড়াতে উদ্যোগ

বান্দরবান পার্বত্য জেলার ৬টি উপজেলায় কারিগরি প্রশিক্ষন কেন্দ্র (টিটিসি) নির্মাণ করা হবে। আর এর জন্য ভূমি অধিগ্রহনের বিষয়ে সহায়তা চেয়ে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থাণ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ইমরান আহমদ এমপি, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপিকে পত্র দিয়েছে।

গত ২৩ সেপ্টেম্বর প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থাণ মন্ত্রণালয় থেকে প্রেরিত এক পত্রে জানা যায়, বিশ্বে দক্ষ কর্মীর চাহিদা থাকায় এবং বর্তমান সরকারের নির্বাচনী ইশতেহার অনুসারে দেশের প্রতি উপজেলার ১ হাজার যুব/ যুব মহিলাকে বিদেশে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা হবে এবং প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় সারা দেশে ৬৪ জেলায় টিটিসি ও ৬টি ইনস্টিটিউট অব মেরিন টেকনোলজি (আইএমটি)র মাধ্যমে স্থানীয় ও বৈদেশিক শ্রমবাজারের চাহিদা অনুযায়ী দক্ষ কর্মী তৈরীর লক্ষে প্রশিক্ষন প্রদান করছে। সারা দেশে ৭১টি টিটিসি প্রশিক্ষন কেন্দ্র নির্মাণের পরিকল্পনা গ্রহন করা হয়েছে। এর অংশ হিসাবে জেলার ৬টি উপজেলায় নির্মাণ করা হবে আধুনিক মানের টিটিসি ভবন।

এই ব্যাপারে জেলার থানচি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: আরিফুল ইসলাম মৃদুল বলেন, এটা অত্যান্ত খুশির সংবাদ টিটিসি নির্মাণ হলে থানচি উপজেলার যুব-যুবতীদের কর্মসংস্থাণ বাড়বে।

আরো জানা গেছে, বান্দরবান জেলার লামা, আলীকদম, নাইক্ষ্যংছড়ি, রুমা,রোয়াংছড়ি ও থানচি উপজেলার উপযুক্ত স্থানে টিটিসি নির্মাণের জন্য কমপক্ষে দেড় একর ভূমি অধিগ্রহনের জন্য দ্রুত জমি নির্বাচনের জন্য জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে উক্ত পত্রে তাগিদ দেওয়া হয়েছে।

এই ব্যাপারে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রীর একান্ত সচিব সাদেক হোসেন চৌধুরী বলেন, জেলার উপজেলা গুলোতে টিটিসি নির্মাণের জন্য ভূমি অধিগ্রহণ করতে বলা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, দেশের ৬৪ জেলার মধ্যে সবচেয়ে কম প্রবাসী রয়েছে বান্দরবান পার্বত্য জেলার, টিটিসি নির্মাণের ফলে দক্ষ কর্মী বিদেশে গেলে বান্দরবান জেলা অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে এগিয়ে যাবে।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।