বান্দরবানে অপহরণের নাটক সাজানো স্বামী গ্রেফতার

স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যা

বান্দরবানে স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যার পর অপহরনের নাটক সাজানো স্বামী রেথোয়াইনু মার্মাকে (৩৮) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আজ শুক্রবার (৭ জানুয়ারি) সকালে রাজবিলা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। মৃত সিংম্যানু মার্মা এক সন্তানের জননী।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, স্ত্রী সিংম্যানু মার্মাকে কুপিয়ে হত্যার পর সন্ত্রাসীরা রেথােয়াইনুকে অপহরন করে নিয়ে যাচ্ছে বলে অপহরনের নাটক সাজিয়ে স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বার কে ফোন দিয়ে পালিয়ে যায় রেথোয়াইনু মার্মা। খবর পেয়ে পাড়াবাসী রেথোয়াইনু মার্মার বাসায় গেলে তার স্ত্রীকে মেঝেতে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে। পড়ে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নিয়ে যায়। রাতে সন্ত্রাসীদের হামলা ও স্বামীকে অপহরনের বিষয়টি এলাকাবাসীর কাছে রহস্যজনক মনে হয়। সন্ত্রাসীদের আগমনের কোন আলামত পাড়াবাসী দেখতে পায়নি এবং নিজের অপহরনের খবর নিজে ফোন দিয়ে বলাতে সন্দেহ আরো বেড়ে যায়। এরপর থেকে পাড়ার মানুষ পলাতক স্বামী রেথোয়াইনুকে খুজতে থাকে রাতের বেলা তাকে রাজবিলা ইউনিয়নের থংজামা পাড়ার একটি পাহাড়ে দেখতে পেয়ে এলাকাবাসী পাহাড়টি ঘেরাও করে রাখে পরে সকালে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে হত্যার সাথে জড়িত বলে পুলিশের কাছে স্বীকার করে।

স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বার শৈসাচিং বলেন, সন্ত্রাসীদের হামলার কোন আলামত দেখতে না পেয়ে পাড়াবাসীর সন্দেহ হয়। কেন না সন্ত্রাসী আসলে এলাকার মানুষ জানতে পারত। আর তাকে অপহরণ করলে সে নিজে ফোন দিতে পারত না। সেটার কারণে সন্দেহ আরো বেশী হয়। এরপর থেকে পাড়ার মানুষ তাকে খুজতে থাকে। পরে শুক্রবার সকালে তাকে পাহাড় থেকে ধরে পাড়ার মানুষ পুলিশের কাছে সোপর্দ করে।

রাজবিলা ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের মেম্বার শৈসা চিং বলেন, সন্ত্রাসীদের হামলার কোন আলামত দেখতে না পেয়েও পাড়াবাসীর সন্দেহ হয়। কেন না সন্ত্রাসীরা আসলে এলাকাবাসী জানতে পারতো। আর তাকে অপহরণ করলে সে নিজে ফোন দিতে পারতো না। এরপর পাড়ার মানুষ তাকে খুঁজতে থাকে, পরে শুক্রবার সকালে পাড়ার একটি থেকে ধরে পুলিশকে সোর্পদ করে।

বান্দরবান পুলিশ সুপার জেরিন আখতার জানান, আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় একজনকে আটক করেছি। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে। আটকের পর পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হত্যাকান্ডের সাথে সে জড়িত বলে স্বীকার করে।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার (৬ জানুয়ারী) গভীর রাতে বান্দরবান সদর উপজেলার রাজবিলা ইউনিয়নের থংজামা পাড়া এলাকায় স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যা করে অপহরনের নাটক সাজিয়ে পালিয়ে যায় স্বামী। রেথোয়াইনু মার্মার বাড়ি রাজবিলা ইউনিয়নের থংজমা পাড়া গ্রামে। রেথোয়াইনু মার্মা ও সিংয়ানু মার্মা দম্পতির একটি ছেলে রয়েছে। দুইজনেরই এটি দ্বিতীয় বিয়ে। দীর্ঘদিন ধরে তাদের মধ্যে সাংসারিক বিরোধ চলে আসছিল।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।