বান্দরবানে কর্মীরা পিটিয়েছে ছাত্রলীগ নেতাকে

বান্দরবানে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এক ছাত্রলীগ নেতাকে মারধর করেছে কর্মীরা । আহত নেতা এই ঘটনায় বান্দরবান সদর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে । তবে ছাত্রলীগ নেতাকে মারধরের সত্যতা পাওয়াই তাৎক্ষণিক ৪ নেতা-কর্মীকে সাময়িক অব্যহতি দিয়েছে জেলা ছাত্রলীগ ।

স্থানীয় সূত্র জানায়, বান্দরবান কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য রবিন বাহাদুর ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সদস্য নির্বাচিত হওয়ায় জেলা ছাত্রলীগ বৃহস্পতিবার বিকেলে সংবর্ধনার আয়োজন করে । শহরের আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সামনে এই সংবর্ধনা সভার আয়োজন করা হয় ।
এতে মোটরসাইকেল বহর নিয়ে অংশ নেয় সংগঠনের শতাধিক নেতাকর্মী।

আরো জানা যায়, সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার মোটরসাইকেল বহরে জেলা ছাত্রলীগের আপ্যায়ন বিষয়ক সম্পাদক আবিদ হাসান ফাহিম এবং সদস্য সাইফুল ইসলাম আকাশের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয় । পরে আবিদ হাসান ফাহিম জেলা সদরের ক্যাং এর মোড় এলাকায় এসে সাইফুল ইসলাম আকাশের উপর চওড়া হয় । পরে বিষয়টি জানাজানি হলে দলীয় নেতা-কর্মীরা সংবর্ধনা মিছিল শেষে মিমাংসা করে দেওয়ার কথা বলে কিন্তু সংবর্ধনা শেষে ফেরার পথে বান্দরবান রাজার মাঠ এলাকায় ১০ থেকে ১৫ জন আবিদ হোসেন ফাহিমকে মারধর করে ।

আরো জানা যায়, বৃহস্পতিবার রাতেই ৯ জনকে অভিযুক্ত করে বান্দরবান সদর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন আহত ছাত্রলীগ নেতা আবিদ হাসান ফাহিম । অভিযুক্তরা হলেন, সাইফুল ইসলাম আকাশ, শুভ দাশ, শাহীন, জোনায়েদ হোসেন, হাসান, জনি, তানজীদ, পরশ এবং টিটু।

আবিদ হাসান ফাহিম অভিযোগ করেন, কোনো কারণ ছাড়াই জেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মী শুভ, হাসান, জনি, পরশ, আকাশ, জোনায়েদ, শাহীন, তানজীদ ও টিটু তাকে মারধর করেছে।

এদিকে ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগ দলীয় শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে চার ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীকে অব্যহতি দেয়া হয়েছে । সাময়িক অব্যহতি দেয়া নেতা-কর্মীরা হলেন, বান্দরবান জেলা ছাত্রলীগের উপ-ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক শুভ দাশ, সদস্য জুনায়েত হাসান, সাইফুল ইসলাম আকাশ এবং ৪ নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক মামুনুর রশীদ শাহিন ।

বান্দরবান জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি কাউসার সোহাগ এবং সাধারন সম্পাদক জনি সুশীল জানান, দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে জেলা ছাত্রলীগের এক সভায় দলের ৪ নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে এই জরুরি সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে ।

আরও পড়ুন
3 মন্তব্য
  1. Suman Chowdhuri Joss বলেছেন

    সো সেড

  2. Mobarok Hossain বলেছেন

    আজ যেই নেতারা কর্মি কে প্রশয় দেয় তাহারা প্রস্তুত হোন।

  3. Aung Mong বলেছেন

    পূর্বেও এই ধরনের ঘটনার আসামিরা পাড় পেয়ে যাওয়াই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হওয়ার অন্যতম কারণ।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।