বান্দরবানে পর্যটকদের ভ্রমনে নিরুৎসাহিত করা হলো : জেলা প্রশাসক

করোনা ভাইরাসের কারনে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত বান্দরবানে পর্যটকদের ভ্রমনে নিরুৎসাহিত করছে জেলা প্রশাসন।

বুধবার সন্ধ্যায় জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ দাউদুল ইসলাম কর্তৃক জেলা প্রশাসনের জারি করা এক প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, করোনা ভাইরাস সংক্রামন প্রতিরোধের নিমিত্তে সরকার প্রজ্ঞাপন দ্বারা জনসমাগম নিষিদ্ধ করায় বান্দরবান পার্বত্য জেলার পর্যটনসমূহে পর্যটক আগমন পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত নিরুৎসহিত করা হলো।

বান্দরবান পার্বত্য জেলায় মেঘলা,নীলাচল,রামজাদি, মিরিঞ্জা, তিন্দু, বড় পাথর, নাফাখুম, রেমাক্রির মুখ, বড় মদকসহ অসংখ্য পর্যটনস্পট রয়েছে। অর্ধশত পর্যটন কেন্দ্রে প্রতিদিন হাজার হাজার পর্যটক ভ্রমনে আসে। আর পর্যটকদের মাধ্যমে করোনা ভাইরাসের বিস্তার লাভ করতে পারে বলে আশংখা প্রকাশ করে স্থানীয়রা।

থানচি উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা আরিফুল হক মৃদুল বুধবার দুপুরে জানান,করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে থানচিতে ভ্রমনেচ্ছু পর্যটকদেরকে আপাতত আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত ভ্রমনে নিরুৎসাহিত করা হচ্ছে। সাময়িক অসুবিধার জন্য আমরা দুঃখিত, এই ব্যাপারে তিনি পর্যটকদের সহযোগিতা কামনা করেন।

প্রসঙ্গত,গত কয়েকদিন ধরে বান্দরবান পার্বত্য জেলায় পর্যটক আগমনের উপর প্রশাসনিক নিষেধাজ্ঞা আরোপের জন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সোচ্ছার হয়েছে স্থানীয়রা। অন্যদিকে বুধবার বিকালে চীন প্রবাসী নারীসহ ৪জনকে কোয়ারেইন্টেনে রাখার কারনে জেলা প্রশাসন দ্রুত এই নির্দেশনা জারি করে বলে মনে করছে স্থানীয়রা।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।