বান্দরবানে পৌর স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা ফারুক আহমেদ ফাহিমসহ ১২ জন বহিস্কার

বান্দরবানে শ্রমিকলীগ নেতাকে মারধরের অভিযোগ, সংগঠনের স্বার্থ হানিকর কর্মকান্ডে সক্রিয়ভাবে সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগে পৌর স্বেচ্ছাসেবকলীগের সদস্য সচিব মো:ফারুক আহমেদ ফাহিমসহ ১২ জনকে পৌর স্বেচ্ছাসেবকলীগ থেকে সাময়িকভাবে বহিস্কার করা হয়েছে।
বহিস্কৃতরা হলো বান্দরবান পৌর স্বেচ্ছাসেবকলীগের সদস্য সচিব মো:ফারুক আহমেদ ফাহিম, ৩ নং ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি আবদুর রশিদ, পৌর শাখার সদস্য মো:সোহাগ,রিমন, মুন্না, ভান্ডারী, মো:সোহেল, মো:আলভী , হেলাল, বেলাল, ফিরোজ ও বাপ্পী। বান্দরবান পার্বত্য জেলার আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি সাদেক হোসেন চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক নোটিশের মাধ্যমে এই বহিস্কার আদেশ প্রদান করা হয়।
নোটিশে জানানো হয়, বান্দরবান জেলা আওয়ামীলীগের জরুরী সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক বান্দরবান আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগ বান্দরবান জেলা শাখার পৌর শাখার সদস্য সচিব মো:ফারুক আহমেদ ফাহিমসহ ১২জনের বিরুদ্ধে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগ লীগের পদে থেকে সংগঠনের স্বার্থ হানিকর কর্মকান্ডে লিপ্ত থাকার অভিযোগ উথাপিত হয়েছে। জেলা আওয়ামীলীগের সভায় এ বিষয়ে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ থাকার বিষয়টি আলোচিত হয়। তাই তাদের সাময়িকভাবে বহিস্কার করা হল।
এই বিষয়ে বান্দরবান জেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি মো:মুছা কোম্পানি বলেন, অভিযুক্তরা জেলা শ্রমিকলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মো:আবুল কালামকে পিটিয়ে মারাত্মক আহত করে। এই ব্যাপারে আওয়ামীলীগ তদন্ত্র করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে বলার কারনে তাদের বহিষ্কার করা হয়।
প্রসঙ্গত,গত ১লা মে জেলা শ্রমিকলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক ও ঠিকাদার মো:আবুল কালামের সাথে বান্দরবান পৌর স্বেচ্ছাসেবকলীগের সদস্য সচিব মো. ফারুক আহম্মেদ ফাহিম ও তার সঙ্গীদের সংঘর্ষ হয় আর এতে মারাত্মকভাবে আহত হয়ে জেলা শ্রমিকলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক ও ঠিকাদার মো:আবুল কালামকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয় , আর এই ঘটনায় আহত হয় আরো বেশ কয়েকজন।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।