বান্দরবানে ফুটবল বিশ্বকাপের উন্মাদনা

বান্দরবান শহরের বাসা-বাড়ির ছাদে উড়ছে পতাকা বিভিন্ন দেশের পতাকা
বিশ্বকাপ ফুটবলের উত্তেজনায় মেতে উঠেছে সারা বিশ্ব। ইতিমধ্যে দূর থেকে নিজ ঘরে বসে টেলিভিশনের পর্দায় খেলা উপভোগ করার আগে ফুটবলপ্রেমীরা বিশ্বকাপের ছোঁয়া পেতে ফেরিওয়ালাদের কাছ থেকে কিনছেন পছন্দের বিভিন্ন দেশের নিজের সমর্থিত পতাকা। চার বছর পরপর ফুটবল বিশ্বকাপ এলেই এমন উন্মাদনা চলে। ব্রাজিল- আর্জেন্টিনাসহ বিভিন্ন দেশের কড়া সমর্থকদের বাসা-বাড়ির ছাদে, আঙ্গিনাসহ বাঁশের খুটি দিয়ে বেঁধে উড়ছে পতাকা।সেই সঙ্গে কিছু কিছু বাঁশের মাথায় বাংলাদেশের পতাকাটিও স্থান পেয়েছে। বিশ্বকাপকে ঘিরে দেশে দেশে চলছে ব্যাপক উৎসাহ-উন্মাদনা। সেই বিশ্বকাপ ফুটবলকে ঘিরে উন্মাদনার জোয়ারে পিছিয়ে নেই বান্দরবানের ফুটবল প্রেমিকরা। বিশ্বকাপের ছোঁয়া পেতে তারাও কিনছেন নিজ পছন্দের দেশের পতাকা ও জার্সি।
এমন একজন ব্রাজিল ভক্তের সাথে কথা হয়, শহরের মধ্যম পাড়ার বাসিন্দা উমে প্রু এর সাথে। তিনি প্রতিবেদককে বলেন, “ব্রাজিল আমার প্রিয় দল। ফেরিওয়ালার কাছ থেকে পতাকা কিনে আমার বাসার ছাদে টাঙিয়েছি। এছাড়াও আমার এলাকায় তাদের প্রিয় দলের পতাকা প্রায় অনেকেই টাঙিয়েছে”।
তার বাড়ির পাশের আরো এক প্রতিবেশী বলেন, “আমি আর্জেন্টিনাকে অনেক ভালোবাসি। বিশেষ করে বিশ্ব ফুটবলের সেরা খেলোয়ার মেসিকে অনেক ভালোবাসি। প্রত্যেক বিশ্বকাপেই আমি এমন বড় বড় একটা আর্জেন্টিনার পতাকা কিনে ব্যানারের মতো টানিয়ে দেই বাসার আঙ্গিনায়”।
জার্মানি, স্পেন, ফ্রান্স, পর্তুগাল, ইটালির মতো এশিয়া মহাদেশ দলের সমর্থকও কম নয়। এদের মধ্যে একজন এশিয়ার ভক্ত বলে, “এশিয়া মহাদেশের অভ্যন্তরে আমার জম্ম। তাছাড়াও আমি একজন বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বী হিসেবে জাপানকে সমর্থন করি। সব মিলিয়ে এবার বিশ্বকাপ আসরে আমার প্রিয় দল(জাপান) ভালো কিছু উপহার দেবে বলেই সম্পূর্ণ আশাবাদী।”
আগামী ১৪ জুন রাশিয়ায় শুরু হচ্ছে বিশ্বকাপ ফুটবল। সেই বিশ্বকাপকে ঘিরে শুরু হচ্ছে বিভিন্ন জায়গায় আলোচনা-সমালোচনা, আড্ডা, বিতর্ক, ইন্টারনেটে, সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম, সবখানেই বিশ্বকাপ ফুটবল।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।