বান্দরবানে বাবার নির্যাতনে মেয়ের মৃত্যু !

বান্দরবানে বাবার মারধরে মেয়ের মর্মান্তিক মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। জেলা শহরের স্টেডিয়াম এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।
স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, বান্দরবান সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণিতে ভর্তি পরীক্ষার ফলাফলে নাম না আসাকে কেন্দ্র করে সজল কান্তি দাশ ও রুপালী রানী দাসের বড় মেয়ে মুন্না রানী দাশ (১২) কে পিতা সজল কান্তি দাশ মারধর করে। ২৬ ই ডিসেম্বর তার মা তাকে নিয়ে বিদ্যালয়ে রেজাল্ট দেখতে যান। এসময় হঠাৎ সে রাস্তায় পড়ে যায় তারপর কয়েক জন মুন্নাকে বান্দরবান সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তকে চট্রগ্রাম নিয়ে যাওয়ার কথা বলেন। পরে তাকে চট্রগ্রাম নেওয়া হলে রাত প্রায় সাড়ে ১১ টার দিকে তাকে মৃত ঘোষনা। রাতে শহরের কেন্দ্রিয় শ্বসানে তার দাহ সম্পর্ণ করা হয়।
আরো জানা গেছে, মুন্না রাণী দাশ বান্দরবান শহরের ডনবস্কো সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থকে এবার ৫ম শ্রেণির শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে। গত ২৪ তারিখ অনুষ্ঠিত বান্দরবান সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ৬ষ্ঠ শ্রেণীর উর্ত্তিণ ভর্তি পরীক্ষাতে অংশগ্রহণ করেন।
তবে এদিকে মুন্না রাণী দাশের পিতা সজল কান্তি দাশ দাবী করেন, মুন্না রাণী দাশ রাতে তার নিজ বাসার সিঁড়ি থেকে নামার পথে পা মছকে পড়ে গুরুত্ব আহত হয়।
এদিকে মুন্না রাণী দাশ এর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বান্দরবান শহরের ডনবস্কো সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক সহকারী শিক্ষিকা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে তার স্ট্যাটাসে লিখেন, শিশুটিকে নির্যাতন করে মেরে ফেলা হয়েছে, আমি অপরাধীদের কঠোর শাস্তি দাবী করছি।

আরও পড়ুন
1 মন্তব্য
  1. সংবাদ বিডি বলেছেন

    Bandarban a eker por ek mormanteek ghotona ghotei solchey. Bandarban er moto shanto poribesh Desher r kotaho nei..

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।