বান্দরবানে বিএনপির ৪৩ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

বান্দরবানে জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির ৪৩ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত হয়েছে। আজ বুধবার (১সেপ্টেম্বর) জেলা বিএনপির অস্থায়ী কার্যলয়ে দলের ৪৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে এই আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

বান্দরবান জেলা বিএনপির আয়োজিত আলোচনা সভায় বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের রুহের মাগফেরাত কামনাসহ বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সুস্থাস্থ্য ও রোগমুক্তি কামনা করা হয়।

উক্ত অনুষ্টানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বান্দরবান জেলা বিএনপি সভাপতি মাম্যাচিং, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জাবেদ রেজা, সাংগঠনিক সম্পাদক জসীম উদ্দীন তুষারসহ অংগ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

বক্তরা সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনা করে বলেন, একদলীয় শাসন বাকশাল কায়েমের পরে দেশে যে রাজনৈতিক শূন্যতা তৈরি হয়েছিল, সেটি পূরণ করতে জিয়াউর রহমান বিএনপি প্রতিষ্ঠা করেছেন। বর্তমানে বাংলাদেশে গণতন্ত্র সম্পূর্ণ অনুপস্থিত।

স্বৈরাচারী শাসকেরা একদিকে জনগণের অধিকার হরণ করছে, অন্যদিকে নির্যাতন নিপীড়নের স্টিম রোলার চালিয়ে বিএনপিকে নির্মূল করে দিতে চায়। কিন্তু বিএনপি জনগণের দল, এই দলকে নির্মূল বা পরাজিত করা যাবে না। প্রতিবারই বিভিন্ন বাধা উপেক্ষা করে প্রতিকূল অবস্থার মধ্য দিয়ে ঘুরে দাঁড়িয়েছে। এবারো জনগণের সক্রিয় সহযোগিতায় আমরা অবশ্যই গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করতে সক্ষম হবো। আর এটাই হচ্ছে এবারের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে আমাদের শপথ।

সভায় বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ জিয়াউর রহমানের নানা দিক আলোচনা করা হয় এবং বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ থাকার আহবান জানান নেতারা।

পরে দেশের কল্যাণ, বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের রুহের মাগফেরাত কামনাসহ বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের রোগমুক্তি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।