বান্দরবানে বৌদ্ধ ধর্মালম্বীদের কঠিন চীবর দানোৎসব শুরু

কঠিন চীবর দানোৎসব
বান্দরবানের আর্যগুহা ধুতাঙ্গ বিমুক্তি বিহারে বৌদ্ধ ধর্মালম্বীদের দানোত্তম কঠিন চীবর দানোৎসব শুরু হয়েছে। আজ শুক্রবার সকালে বান্দরবান জেলা সদরের কালাঘাটার আর্যগুহা ধুতাঙ্গ বিমুক্তি বিহারে এই কঠিন চীবর দানোৎসব শুরু হয়।
কঠিন চীবর দানোৎসব উপলক্ষে সকালে প্রথমেই জাতীয় ও ধর্মীয় পতাকা উত্তোলন ও মঙ্গলসুত্র পাঠ এর মাধ্যমে পূজনীয় ভিক্ষুসংঘের পিন্ডাচরণ অনুষ্ঠান অনুষ্টিত হয়, এর পরপরই পঞ্চশীল প্রার্থনা,সদ্ধর্ম দেশনা,অষ্ট পরিষ্কারদান ,সংঘদান অনুষ্টিত হয়। পরে এক ধর্মসভা অনুষ্ঠিত হয়। এসময় আর্যগুহা ধুতাঙ্গ বিমুক্তি বিহারের ভান্তে ড.এফ.দীপংকর মহাথের উপস্থিত বৌদ্ধ দায়ক-দায়িকা ও উপাসক উপাসিকাদের উদ্যোশে বিভিন্ন ধর্মীয় দেশনা প্রদান করেন।
অনুষ্ঠানে বান্দরবান রাঙ্গামাটি-খাগড়াছড়িসহ জেলা-উপজেলার বিভিন্ন বৌদ্ধ ধর্মালম্বীরা উপস্থিত হয়ে পঞ্চশীল প্রার্থনায় অংশ নেয় এবং ভান্তেদের বিভিন্ন রকেমের ছোয়াইং (উৎকৃষ্ট খাবার) দান করে। অনুষ্ঠানে আর্যগুহা ধুতাঙ্গ বিমুক্তি বিহারের দানোত্তম শুভ কঠিন চীবর দানোৎসবের আয়োজন কমিটির আহবায়ক চৌধুরী বাবুল বড়ুয়া,অর্থ সচিব আদর কুমার তংচঙ্গ্যা, সদস্য সচিব এমিল তংচঙ্গ্যাসহ আর্যগুহা ধুতাঙ্গ বিমুক্তি বিহার কমিটির বিভিন্ন পদমর্যাদার ব্যক্তিবর্গরা উপস্থিত ছিলেন।
প্রবারণা পূর্নিমা পালনের পর থেকে মাসব্যাপী বিভিন্ন বৌদ্ধ বিহারে বিহারে এই কঠিন চীবর দানোৎসব অনুষ্ঠিত হয় আর এই কঠিন চীবর দানোৎসব বৌদ্ব ধর্মালম্বীদের জন্য একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি দিন। আজ সন্ধ্যায় বিশ্ব শান্তি কামনায় প্রদীপ প্রজ্জলন ও ফানুশ বাতি উত্তোলনের মধ্য দিয়ে এই দানোত্তম কঠিন চীবর দানোৎসবের সমাপ্তি ঘটবে।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।