বান্দরবানে ভাল্লুকের আক্রমনে পাড়া কারবারীসহ ৩ জন আহত

বান্দরবানের চিম্বুকে জুমের কাজ করতে গিয়ে ভাল্লুকের হামলার শিকার হয়ে আহত হয়েছে পাড়াকারবারীসহ ৩জন। পরে সেনাবাহিনী তাদের উদ্ধার করে উন্নত চিকিৎসার জন্য হেলিকপ্টার যোগে চট্টগ্রাম সিএমএইচ হাসপাতালে নিয়ে যায়।

আহতরা হলেন পাড়া কারবারী ও য়্যংওয়াই ম্রো, পিং রিংরাও ম্রো ও মাংলিও ম্রো (১০)। তাদের বাড়ি বান্দরবানের চিম্বুক পাড়ায়। শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারী) সকালে টংকাবতী ইউনিয়নের চিম্বুক পাড়ার ১৮ মাইল নামক স্থানে ঘটনাটি ঘটে।

সেনাসূত্রে জানাযায়, কাজের তাগিদে পাড়া কারবারী ও য়্যংওয়াই ম্রো, রিংরাও ম্রো ও মাংলিও ম্রো (১০) জুম চাষের জন্য গেলে সেখানে তাদের উপর ভাল্লুক হামলা চালায়। এসময় ভাল্লুকটি পিং রিংরাও ম্রো এর চোখসহ মুখের একাংশ উপড়ে ফেলে।

পরে আশংকাজনক অবস্থায় আহতদের প্রথমে বান্দরবান সদর হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য তাদের চট্টগ্রামে প্রেরন করে। কিন্তু আর্থিক সংকটের কারণে সেনাবাহিনীর নিকট শরণাপন্ন হলে বান্দরবান ৬৯ পদাতিক ব্রিগেডের ব্রিগেড কমান্ডার মেজর জেনারেল জিয়াউল হকের নির্দেশক্রমে বান্দরবান ৭ ফিল্ড এ্যাম্বুলেন্স প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে হেলিযোগে চট্টগ্রামে পাঠানো হয়।

বান্দরবান ৬৯ পদাতিক ব্রিগেডের ব্রিগেড কমান্ডার মেজর জেনারেল জিয়াউল হক জানান, উন্নত চিকিৎসার জন্য সেনাবাহিনী নিজস্ব হেলিকপ্টারে করে আহতদের চট্টগ্রাম নিয়ে গেছে। পাহাড়ের মানুষের উন্নয়নের জন্য সেনাবাহিনী নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। আগামীতেও তাদের একার্যক্রম চলমান থাকবে বলেও জানান তিনি।

আরও পড়ুন
1 মন্তব্য
  1. অভি বড়ুয়া বলেছেন

    ভূয়া রিপোর্ট করেন কেন। সম্পূর্ণ চিকিৎসা দিলাম আমরা ইমানুয়েল হাসপাতালে করলাম। সদর হাসপাতালে রোগীকে ধরেও দেখেনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।