বান্দরবানে ভূমি বেদখল ও পাহাড়ি উচ্ছেদ বন্ধ করার দাবি জানালো চার সংগঠন

বান্দরবানের বিভিন্ন এলাকায় বহিরাগত কর্তৃক অবৈধভাবে ভূমি দখলের ঘটনা বৃদ্ধিতে এবং এর ফলে সেখানে যুগ যুগ ধরে বসবাসকারী ব্যাপক সংখ্যক পাহাড়ি আদি বাসিন্দার উচ্ছেদ হওয়ার আশংকা সৃষ্টিতে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। ইউনাইটেড পিপলস্ ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ) ভুক্ত চার সংগঠনের প্রধানরা।

আজ বুধবার ১১ সেপ্টেম্বর বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের সভাপতি বিপুল চাকমা, গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের সভাপতি অংগ্য মারমা, হিল উইমেন্স ফেডারেশনের সভাপতি নিরুপা চাকমা ও ইউনাইটেড ওয়ার্কার্স ডেমোক্রেটিক ফ্রন্টের সভাপতি সচিব চাকমা সংবাদ মাধ্যমে এ বিবৃতি দেন।

গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম কেন্দ্রিয় কমিটির সহ সাধারণ সম্পাদক বরুন চাকমা প্রেরিত বিবৃতিতে তারা অভিযোগ করে বলেন, স্থানীয় প্রশাসনের সহযোগিতায় বহিরাগতরা কেবল স্থানীয়দের জমিজমা বেদখল করে তাদেরকে গ্রাম থেকে উচ্ছেদ করছে তাই নয়, তারা পাহাড়িদের জীবিকা ধ্বংস এবং পরিবেশ ও জীব বৈচিত্র্যেরও চরম ক্ষতি করছে। আলিকদমে ভূমি বেদখলকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনাও ঘটেছে বলে নেতৃবৃন্দরা উল্লেখ করেন এবং অবিলম্বে ভূমি বেদখল বন্ধ এবং বেদখলকারী ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেয়ার দাবি জানান।

তারা একই সাথে স্থানীয় জনগনকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে গণতান্ত্রিকভাবে ভূমি বেদখল প্রতিরোধ করারও আহবান জানিয়েছেন। স্থানীয়ভাবে জনগণের অংশ গ্রহণের ভিত্তিতে প্রতিরোধ গড়ে তোলাই হলো ভূমি বেদখল বন্ধের সর্বোত্তম পন্থা বলে তারা মন্তব্য করেন।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।