বান্দরবানে রথ বির্সজনের মধ্যে দিয়ে শেষ হলো প্রবারণা উৎসব

বান্দরবানে নানা আয়োজন আর ধর্মীয় আনুষ্ঠানিকতায় উদযাপিত হয়েছে বৌদ্ধ ধর্মালম্বীদের প্রবারণা পূর্ণিমা। গত ১২ অক্টোবর থেকে প্রদীপ প্রজ্জলন,ফানুস বাতি উত্তোলন আর বর্নিল সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানসহ নানা ধর্মীয় রীতিনীতিতে বান্দরবানে শুরু হয় বৌদ্ধ ধর্মালম্বীদের প্রবারণা পূর্ণিমা। মারমা সম্প্রদায়ের কাছে এই উৎসব ওয়াগ্যোয়াই পোয়ে নামে পরিচিত।

প্রবারণা পূর্ণিমা পালন উপলক্ষে বান্দরবানে বৌদ্ধ ধর্মালম্বীদের ঘরে ঘরে উৎসবের আমেজ বিরাজ করে। প্রবারণা পূর্ণিমা উদযাপন উপলক্ষে গত সোমবার সন্ধ্যায় বিহারগুলোতে মহামতি বুদ্ধের কাছে মঙ্গল প্রার্থনার জন্য সমবেত হন ভক্তরা। সন্ধ্যায় বিভিন্ন বিহারে ওড়ানো হয় রংবে রং এর ফানুস। ফানুসের আলোকসজ্জায় পুরো বান্দরবানের আকাশ হয়ে ওঠে বর্ণিল সাজে।

এর আগে পুরাতন রাজবাড়ী মাঠ থেকে এক বিশাল রথযাত্রা শুরু হয়ে শহরের
বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে বিভিন্ন বিহার প্রদক্ষিণ শেষে শহরের সাঙ্গু নদীতে নিয়ে যাওয়া হয়। এসময় শতাধিক তরুণ তরুণী রথ টেনে এবং মোমবাতি ও ধুপ জ্বালিয়ে প্রণাম করে। পরে রাত সাড়ে ১২টার দিকে শহরের সাঙ্গু নদীতে রথ বিসর্জন দেওয়া হয়।

বান্দরবানের উৎসব উদযাপন কমিটির সভাপতি থেওয়াং জানান, বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা শেষে সাংগু নদীতে রথ বির্সজনের মধ্যে দিয়ে শেষ হয় বান্দরবানে প্রবারণা উৎসবের।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।