বান্দরবানে লকডাউনের স্বেচ্ছাসেবকদের পাশে সমাজকর্মীরা

বান্দরবানে বিভিন্ন ওয়ার্ডে লকডাউনে সহযোগিতা করা স্বেচ্ছাসেবকদের খাবার দিয়ে সহযোগিতা করেছে স্থানীয় কয়েকজন সমাজকর্মী।

বান্দরবানের ৯টি ওয়ার্ডে লকডাউন বাস্তবায়ন করার জন্য স্বেচ্ছায় কর্মরত স্বেচ্ছাসেবকদের বিকেলের খাবার প্রদান করেন বান্দরবানের সমাজসেবক ও পার্বত্যমন্ত্রীর একান্ত সহকারি সচিব মো:সাদেক হোসেন চৌধুরী,ব্যবসায়ী আনন্দ দাশ, ঠিকাদার রাজু বড়ুয়া,সমাজসেবক রানা চৌধুরী ও মো:আসিফ আকবর। এসময় বান্দরবানের ৯টি ওয়ার্ডের ১শত ৬০জন স্বেচ্ছাসেবকদের পানি,জুস,বিস্কুট ও বিভিন্ন খাদ্য সামগ্রী দেয়া হয়।

সমাজকর্মী রানা চৌধুরী জানান, বান্দরবানে করোনা রোগী বৃদ্ধি পাওয়ায় গত ২৫জুন থেকে ৩য় দফায় লকডাউন শুরু হয়েছে,আর এই লকডাউন বাস্তবায়নে বান্দরবানের ৯টি ওয়ার্ডে প্রায় ১শত ৬০জন স্বেচ্ছাসেবক কাজ করছে। এই স্বেচ্ছাসেবকরা ওয়ার্ড ভিত্তিক কাউন্সিলরদের নেতৃত্বে এলাকায় মানুষের সেবা প্রদানের জন্য সকাল থেকে রাত অবধি পাড়ার প্রবেশ মুখে অবস্থান করছে রোদ বৃষ্টি মাথায় নিয়ে,আর তাদের এই দু:সময়ে আমরা কয়েকজন মিলে স্বেচ্ছাসেবক ভাইদের জন্য কিছু খাবার দেওয়ায় কার্যক্রম শুরু করেছি। সমাজকর্মী রানা চৌধুরী আরো জানান,আমরা এখন থেকে প্রতিদিন ৯টি ওয়ার্ডের স্বেচ্ছাসেবকদের কিছু খাবার দেওয়ায় চেষ্টা অব্যাহত রাখবো যাতে তারা এই কার্যক্রম সুষ্টভাবে সম্পাদন করতে পারে।

বান্দরবান পৌরসভার সুত্রে জানা যায়, বান্দরবানে করোনা সংক্রামক প্রতিরোধে ২১দিনের জন্য লকডাউন ঘোষনা করেছে জেলা প্রশাসন আর এই লকডাউন কার্যকর করতে পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে দেড় শতাধিক স্বেচ্ছাসেবক কাজ করবে। পৌরসভার ১,২,৩ নং ওয়ার্ডে ৩০জন,৪ নং ওয়ার্ডে ১০জন,৫ নং ওয়ার্ডে ১৫জন,৬নং ওয়ার্ডে ২৫জন,৭নং ওয়ার্ডে ১০জন,৮নং ওয়ার্ডে ২৫জন ও ৯নং ওয়ার্ডে স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে কাজ করবে ৩০জন। নির্ধারিত এই স্বেচ্ছাসেবকরা বান্দরবান পৌরসভার অনুমোদিত পরিচয়পত্র বহন করছে এবং প্রতিটি ওয়ার্ডের জনগণের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধি,মাস্ক ব্যবহার করার তাগিদ দিচ্ছে এবং সেই সাথে এলাকায় কারো কোন জরুরী দ্রব্য বা ওষুধ প্রয়োজন হলে তা বাড়ী গিয়ে সরবরাহ করছে।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।