বান্দরবানে শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে সংবর্ধনা প্রদান

জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে সংর্বধনা প্রদান
বান্দরবানে মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে সংর্বধনা প্রদান ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার দুপুরে বান্দরবান জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক দিদারে আলম মোহাম্মদ মাকসুদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে এসময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক দিলীপ কুমার বণিক।
এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সরকারের সাবেক যুগ্ম সচিব বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. আব্দুল ওহাব, পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য মুক্তিযোদ্ধা শফিকুর রহমান, জেলা প্রশাসনের নেজারত ডেপুটি কালেক্টর আলী নূর খান,সহকারী কমিশনার মোহাম্মদ আজিজুর রহমান,জেলা কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেম,সাবেক জেলা কমান্ডার আব্দুল জলিল, বান্দরবান পার্বত্য জেলার বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যরা।
সংর্বধনা অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন “মুক্তিযোদ্ধারা আমাদের দেশের অহংকার । মুক্তিযুদ্ধের বিজয় কেবল একটি জাতীয় পতাকা এবং স্বাধীন ভূখন্ডের মধ্যে সীমিত নয়, এর তাৎপর্য বিরাট ও সুদূর প্রসারী। মুক্তিযুদ্ধের বিজয়ের মধ্য দিয়ে অবহেলিত পশ্চাৎপদ শোষিত জাতি রচনা করেছিল অসামান্য গৌরব গাঁথা। যার ফলাফল হিসেবে আজ আমরা জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, ডাক্তার,ম্যাজিস্ট্রেট ইত্যাদি হয়েছি আর এর পিছনে আছে আমাদের দেশের বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সবচেয়ে বড় অবদান।
এসময় বাংলাদেশ সরকারের সাবেক যুগ্ম সচিব বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. আব্দুল ওহাব বলেন, দেশ স্বাধীন হলে ও আমরা এখন ও রাজাকারদের দেখতে পাচ্ছি। রাজাকারদের অনেকে আজ ও বহাল তবিলতে আছে, যা দেখে আমাদের দু:খ লাগে। এসময় তিনি বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানান এবং বলেন,শেখ হাসিনা সরকারের কারণে আজ মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের পরিবার অনেক উন্নত জীবন যাপন করছে। সরকারের সাহসিকতা ও আন্তরিকতার কারণে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার হচ্ছে এই দেশে। মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের পরিবার আজ বিভিন্ন ধরণের সরকারি ভাতা পেয়ে সুখে শান্তিতে জীবনযাপন করছে।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।