বান্দরবানে ৩য় দফায় চলছে ২১দিনের লকডাউন

বান্দরবান স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে বান্দরবান সদর ও লামা পৌরসভা এলাকাকে রেড জোন, আলীকদম,নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলাকে হলুদ, রোয়াংছড়ি,রুমা, থানছি উপজেলাকে সবুজ জোন ঘোষনা করা হয়েছে।

এদিকে এই ঘোষনার পরপরই বান্দরবান জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ২৫ জুন (বৃহস্পতিবার) সকাল ৬টা হতে কঠোরভাবে লকডাউন শুরু হয়েছে। লকডাউনের কারণে বান্দরবানে ঔষধের দোকান ব্যতীত সবধরনের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, মাছ বাজার, কাঁচাবাজার মুদি দোকান বন্ধ থাকার পাশাপাশি বন্ধ রয়েছে সকল ধরণের গণ-পরিবহণ ।

বান্দরবান পৌরসভায় পক্ষ থেকে ৯টি ওয়ার্ডে লকডাউন কার্যকর করতে পৌরসভার পক্ষ থেকে কাজ শুরু করা হয়েছে , জনসাধারণ ঘর থেকে বের না হয়ে নিজ নিজ এলাকায় অবস্থান করার জন্য ভ্রাম্যমান ভ্যানগাড়িতে প্রতিটি ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে শাক-সবজি, কাচাঁমাল বিক্রির ব্যবস্থা করছে পৌর প্রশাসন আর পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে ১শত ৫০জন স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগের মাধ্যমে ওয়ার্ডভিত্তিক জনগনকে সেবার কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। প্রতিটি ওয়ার্ডে লকডাউন কার্যক্রর করার জন্য পৌরসভার নির্ধারিত স্বেচ্ছাসেবকরা সকাল থেকে ওয়ার্ড এর প্রবেশমুখে অবস্থান করছে এবং জনগণকে সচেতন করার পাশাপাশি অনাকাংখিত ঘোরাঘুরি বন্ধে সবাইকে অনুরোধ জানাচ্ছে।

এর আগে বান্দরবানে করোনা রোগী বৃদ্ধি পাওয়ায় গত ১০জুন (বুধবার) দুপুর ১২টার থেকে বান্দরবান সদর উপজেলা ও রুমা উপজেলাকে রেড জোন ঘোষনা করে প্রশাসন।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।