বান্দরবানে ৫৭ পরিবারকে সহায়তা প্রদান করেছে সেনাবাহিনী

NewsDetails_01

বান্দরবানে কুকি চিন ন্যাশনাল ফ্রন্ট কেএনএফ’র সন্ত্রাসী কর্মকান্ড বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর রোয়াংছড়িতে ফিরে আসা ৫৭পরিবারকে বিনামূল্যে চিকিৎসা ও খাদ্য সহায়তা দিয়েছে সেনাবাহিনী।

গত সোমবার (২০ নভেম্বর) দুপুরে বান্দরবানের রোয়াংছড়ি উপজেলা সদর থেকে ১৫ কিলোমিটার দূরে দুর্গম পাইক্ষ্যং পাড়ায় বান্দরবান সদর জোনের সেনা সদস্যরা এই সহায়তা দিয়েছে।

NewsDetails_03

এসময় সেনাবাহিনীর সদর জোনের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মাহমুদুল হাসান, উপ অধিনায়ক মেজর এস এম মাহমুদুল হাসান, শান্তি প্রতিষ্ঠা কমিটির সদস্য লালজার বম সহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

দীর্ঘ আট মাস পর ওই পরিবারগুলো এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ায় পাড়ায় ফিরতে শুরু করেছে, সম্প্রতি শান্তি প্রতিষ্ঠা কমিটির সাথে কেএনএফ’র বৈঠকের পর পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে আসে।
রোয়াংছড়ি সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মেহ্লা অং মারমা এবং হেডম্যান বৈথং বম জানান, কুকিচিনের ভয়ে ৯৭টি পরিবার পাড়া থেকে পালিয়ে গিয়েছিল, দীর্ঘদিন যারা বান্দরবান সদরসহ রোয়াংছড়ি উপজেলা সদরের বিভিন্ন স্থানে অবস্থান করেছিল, এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ায় পাড়াবাসী ফেরত আসছে।

সুত্রে জানা যায়, পাইক্ষ্যং পাড়ায় ৯৭পরিবারের মধ্যে ৫৭ পরিবার এখন ফিরে এসেছে। কুকিচিন ন্যাশনাল ফ্রন্ট কেএনএফ’র সন্ত্রাসী তৎপরতার কারণে ওই পাড়াসহ আশেপাশের ১০টিরও বেশি পাড়া থেকে তিন শতাধিক পরিবার বিভিন্ন এলাকায় পালিয়ে গিয়েছিল।

আরও পড়ুন