বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের শিক্ষক নিয়োগে কোনো অনিয়ম হয়নি, দাবি চেয়ারম্যানের

বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের বিভিন্ন পদে শিক্ষক নিয়োগে কোনো অনিয়ম হয়নি বলে দাবি করেছেন পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ক্য শৈ হ্লা।

বৃহস্পতিবার (৭ জুলাই) সকালে পার্বত্য জেলা পরিষদের মিলনায়তনে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়কালে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এ দাবি জানান।

চেয়ারম্যান ক্য শৈ হ্লা আরো বলেন, জেলা পরিষদের ন্যাস্ত বিভাগ সমূহের যে কোনো নিয়োগ স্বচ্ছতার সাথে সম্পন্ন করা হয়ে থাকে। তাই কোনো অনিয়ম বা দুর্নীতির সুযোগ নেই।

সম্প্রতি জেলা পরিষদের প্রাথমিক, পরিবার পরিকল্পনাসহ আরও কয়েকটি বিভাগের নিয়োগে অনিয়ম ও ঘুষের মাধ্যমে নিয়োগ ও স্বজনপ্রীতি করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠে। এসব বিষয়ে পরিষদের বক্তব্য তুলে ধরার জন্য সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় আয়োজন করা হয়।

জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ক্য শৈ হ্লা বলেন, কেউ কেউ নিজস্ব লোকজনের নিয়োগ না হওয়ায় ক্ষুব্ধ হয়েছেন। এছাড়া জেলা পরিষদকে বিতর্কিত ও সুনাম ক্ষুন্ন করার জন্য কিছু ব্যক্তি ও চক্র নানা ষড়যন্ত্র করছে। ওই চক্রটিই জেলা পরিষদের নিয়োগ প্রক্রিয়াকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে অপপ্রচার চালাচ্ছে।

পরিষদ চেয়ারম্যান বলেন, সরকারি বিধি মোতাবেক সকল নিয়ম মেনেই নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হয়েছে। এতে কেউ বিভ্রান্ত না হতে আহ্বান জানান। এসময় চেয়ারম্যান সঠিকভাবে সংবাদ প্রকাশ করার জন্য সাংবাদিকদের প্রতি আহ্বান জানান।

বয়সের নির্দিষ্ট সীমা নিয়ে চেয়ারম্যান ক্যশৈহ্লা বলেন, শিক্ষা এবং ট্যাকনিকেলের নিয়োগ পরীক্ষাগুলোতে এখন বয়সসীমা ৩০ বছর।

এসময় মতবিনিময়সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য কাঞ্চনজয় তঞ্চঙ্গা, সদস্য সত্যহা পানজি ত্রিপুরা, সদস্য বাশৈচিং মারমা, নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন, বান্দরবান প্রেসক্লাবের সভাপতি আমিনুল ইসলাম বাচ্চু, সাধারণ সম্পাদক মিনারুল হক, প্রথম আলো জেলা প্রতিনিধি বুদ্ধজ্যোতি চাকমা সহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সংবাদকর্মীরা।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।