বান্দরবান পুলিশে নিয়োগ শেষ হলো মাত্র ১০৩ টাকায়

বান্দরবানের পুলিশ প্রশাসন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও জেলা তথ্য অফিসের মাধ্যমে মাইকিং করিয়ে বান্দরবানের জনসাধারণ কে জানিয়ে ছিলেন যে “১০৩ টাকায় বান্দরবান জেলায় মিলবে পুলিশে চাকুরি”। আর এরি অংশ হিসাবে ১০৩ টাকায় পুলিশ কনস্টেবল পদে নিয়োগ প্রদান করেন বান্দরবানের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকির হোসেন মজুমদার পিপিএম।
তিনি বলেছিলেন ৩ টাকা মূল্যের একটি ফরম ও ১০০ টাকার ব্যাংক ড্রাফট করলেই মিলবে বাংলাদেশ পুলিশ বিভাগের চাকরি। এটিকে বাস্তবে রূপ দিতে বান্দরবানে পুলিশ কনস্টেবল পদে ঘুষ- দুর্নীতিমুক্ত স্বচ্ছ পরিবেশে নিয়োগ প্রদানের লক্ষ্যে পরীক্ষার পূর্বে পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে সকল প্রকার প্রচারণা চালানো হয়। যাতে করে পুলিশে কনস্টেবল নিয়োগ পরীক্ষায় অংশ গ্রহনকারীরা কোন দালালের খপ্পরে না পরেন। বান্দরবানের মিলল মেধা ও যোগ্যতার ভিত্তিতে বান্দরবানে এই প্রথম বারের মত ১০৩ টাকা ব্যয়ে ৫৯ জন তরুণ-তরুণী পুলিশ কনস্টেল পদে চাকরি।
বান্দরবানের লামার মুক্তিযোদ্ধার সন্তান কুলছুমা আক্তার বলেন,ছোট বেলা থেকে স্বপ্ন দেখতাম আমি পুলিশের পোশাক গায়ে দিবো। কিন্তু এতো দিন সেটা ছিল আমার কাছে শুধু স্বপ্ন। তাই সত্যি আমার স্বপ্নপূরণ হয়েছে।
বান্দরবান সদর থেকে ১০৩ টাকায় চাকরী পাওয়া সবিতা ত্রিপুরা বলেন, জীবনে প্রথম বার বিশ্বাস করতে বাধ্য হলাম যে বিনা টাকায় একটি সরকারী চাকরি পাওয়া যায়। যেটা আমার মত একজন মেয়ের জন্য কখনো সম্ভব হতো না। কারণ বাবা-মা জুমে কাজ করে অনেক কষ্টে আমাদের পড়ালেখা করাছেন।
লামা উপজেলা থেকে চাকরী পাওয়া মো: রাকিবুল ইসলামের বাবার সাথে মুঠো ফোনে যোগাযোগ করা হলে তারা বলেন, আমি জীবনে ভাবতেও পারিনি এই যুগে আমাদের সন্তানদের পুলিশের চাকরি পাবে তাও আবার ১০৩ টাকায়।
পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকির হোসেন মজুমদার (পিপিএম)জানান,মুক্তিযুদ্ধে প্রথম প্রতিরোধকারী বাহিনী বাংলাদেশ পুলিশের ভাবমূর্তি অব্যাহত রাখতে আন্তরিকতা ও নিষ্ঠার সঙ্গে গোয়েন্দা নজরদারি অব্যাহত রেখে শুধু মেধা এবং প্রয়োজনীয় যোগ্যতার ভিত্তিতেই এবারে পুলিশ কনস্টেবল নিয়োগ সম্পন্ন করা হয়েছে।
জানা যায়, ৫৯ জন নিয়োগপ্রাপ্ত কনস্টেবলের মধ্যে অনেকে এসেছে অতিদরিদ্র পরিবার থেকে। এদের মধ্যে অনেকেই এতিম, অতিদরিদ্র কৃষক, নৈশ প্রহরী, দর্জি, দিনমজুর, শ্রমজীবী, রিকশা-ভ্যানচালক, গৃহপরিচারিকার কাজ করে এমন পরিবার থেকেও এসেছে অনেকে। এ সময় বান্দরবান জেলা পুলিশের উর্ধতন কমকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, ২৪ জুন পুলিশ কনস্টেবল নিয়োগের অংশ হিসেবে লাইনে দাঁড়ায় বান্দরবান জেলার সাত উপজেলার ২৪০ জন চাকরি প্রত্যাশী তরুণ-তরুণী। পরে শারীরিকভাবে যোগ্য ১৩৪ প্রার্থী নির্বাচিত করা হয়। এবং পরে সেখান থেকে সকল পরীক্ষায় উর্ত্তীণ হয় ৫৯ জন নারী- পুরুষ যার মধ্যে ৫০ জন পুরুষ ৯ জন নারী উর্ত্তীণ হন।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।