বিজয় টিভি’র বান্দরবান প্রতিনিধি রিমনের বিরুদ্ধে মামলা

যে কোন সময় গ্রেপ্তার

বান্দরবান শহরে করোনা কালে দায়িত্বরত এক (কন্যা) শিশু স্কাউট সুমাইয়া আক্তার বিজয় টিভির বান্দরবান প্রতিনিধি রিমন পালিতকে শহরের চৌধুরী মার্কেট এলাকায় গত ১২ জুলাই মাস্ক পড়তে বলার কারনে তর্কাতর্কি ও হুমকি প্রদানের পর একই দিন বিকালে এই স্কাউটের বাসায় গিয়ে প্রকাশ্যে মারধর এর অভিযোগে মামলা করেছে ভূক্তভোগী স্কাউট। আর মামলার পর থেকে তাকে গ্রেপ্তারের জন্য চেষ্টা করছে পুলিশ।

বান্দরবান সদর থানায় (১৪ জুলাই) বৃহষ্পতিবার শারীরিক নির্যাতিত স্কাউট সুমাইয়া আক্তারের মা বাদী হয়ে বান্দরবান সদর থানায় এই মামলা দায়ের করেন বলে থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. সোহেল রানা জানিয়েছেন। তিনি আরো জানান, মামলার পর আসামিকে দ্রুত গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

গণমাধ্যমকর্মীদের সূত্রে জানা যায়,চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার নাগরিক রিমন পালিত গত ৫-৬ বছর আগে বান্দরবানে অবস্থান করে বিজয় টিভি,দৈনিক প্রতিদিনের সংবাদ, অনলাইন নিউজ পোর্টাল পার্বত্য নিউজ এর বান্দরবান জেলা প্রতিনিধি হিসাবে দায়িত্ব পালন করছিলেন। এরপর থেকে জেলায় ব্যবসায়িদের কাছ থেকে চাঁদাবাজী, চাঁদা দিতে অস্বীকার করলে হয়রানি,বিভিন্ন হোটেল অনৈতিক কার্যকলাপে জড়িত থাকাসহ বিভিন্ন অভিযোগ রয়েছে।

আরো জানা গেছে, গত ১১ জুলাই সকাল ১১ টা ৩০ মিনিটের সময় লক ডাউন দায়িত্বরত স্কাউট সদস্যা তাকে মাস্ক পড়তে বলায় খারাপ আচরণ করেন এবং হুমকি দেন। এই ঘটনার পর এই স্কাউট নিরাপত্তাহীনতায় ভোগেন। একেই দিন বিকাল চার টায় সুমাইয়া আক্তারের বাসায় গিয়ে গৃহে অনধিকার প্রবেশ ও মারপিট করে জখম ও ভীতি প্রদর্শনের অভিযোগে গতকাল ১৪ জুলাই সদর থানায় এই মামলা দায়ের করা হয়।

এই ব্যাপারে ভুক্তভোগী স্কাউট সুমাইয়া আক্তার বলেন, একজন স্কাউট হিসাবে আমি আমার দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে ঘটনার শিকার হয়। এর পর থেকে আমি আতংকে আছি, আমি এই ঘটনার সঠিক বিচার চায়।

প্রসঙ্গত,এদিকে এই স্কাউটকে হুমকি প্রদান ও বাসায় গিয়ে মারধর করার একটি ভিডিও’সহ ২টি ভিডিও পার্বত্য জেলার অন্যতম নিউজ পোর্টাল পাহাড়বার্তা’য় প্রকাশ হলে বান্দরবানসহ অপর দুই পার্বত্য জেলার স্থানীয়রা ও সিনিয়র সাংবাদিকরা অনতিবিলম্বে এই সাংবাদিকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবী জানিয়ে সোচ্ছার হলে তোলপাড় শুরু হয় স্থানীয় প্রশাসনে।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।