বিদেশ যাওয়া হলোনা রোহিঙ্গা নারী’র : বান্দরবানে পাসপোর্ট বানাতে এসে পুলিশের জালে ৫ জন

রোহিঙ্গা নারী সাইকা ও আবদুল মালেক

তিনি মিয়ানমারের রোহিঙ্গা, বিদেশ যাবেন বাংলাদেশি পাসপোর্ট নিয়ে। আর বান্দরবানের পাসপোর্ট অফিসে পাসপোর্ট করতে এসে পুলিশের হাতে আটক হয়েছে কক্সবাজারের উখিয়া শরণার্থী ক্যাম্পের রোহিঙ্গা নারী সাইকাসহ ৫জন। আটকৃতরা হলো উখিয়া পালংখালী রেজিষ্ট্রার্ড ভুক্ত রোহিঙ্গা ক্যাম্পের রোহিঙ্গা নারী সাইকা, নাইক্ষ্যংছড়ি সদর ইউনিয়ন পরিষদের গ্রাম পুলিশ (চৌকিদার) আবদুল মালেক,দালাল মো. জোবাইর , ছৈয়দ হোসেন ও এলেম খাতুন ।
বান্দরবান সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো:শহিদুল ইসলাম চৌধুরী জানান,বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা থেকে নকল কাগজ পত্রসহ বান্দরবান সদরে পাসপোর্ট করতে এসে পুলিশের হাতে আটক হয়েছে রোহিঙ্গা নারীসহ তিনজন, পরে তাদের আটকের পর ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে নাইক্ষ্যংছড়ি থেকে আরো দুইজনকে আটক করা হয়।
পুলিশের একটি সূত্র পাহাড়বার্তাকে জানায়, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে এই রোহিঙ্গা নারী নাইক্ষ্যংছড়ি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান তসলিম ইকবাল চৌধুরী জন্মনিবন্ধন সনদ প্রদান ও এনআইডি কার্ড করতে সহযোগীতা করেন বলে জানান।
এই ব্যাপারে বান্দরবান জেলার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকির হোসেন মজুমদার বলেন,আটককৃতদের বিরুদ্ধে প্রতারণা মামলা দায়ের করা হবে এবং কোন রোহিঙ্গা ছল ছাতুরী করে নকল কাগজ পত্র নিয়ে পাসপোর্ট করতে আসলে তাদের গ্রেফতার করা হবে এবং রোহিঙ্গাদের পাসপোর্ট ও স্থায়ীত্ব প্রদানে কোন জনপ্রতিনিধি বা কারো সহায়তার প্রমান পেলে তার বিরুদ্ধে ও ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।