মাটিরাঙ্গায় ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের পাবলিক পরীক্ষা শুরু

মাটিরাঙ্গায় ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের পাবলিক পরীক্ষা
মাটিরাঙ্গায় ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের পাবলিক পরীক্ষা
সুষ্ঠ ও শান্তিপুর্ণ পরিবেশের মধ্য দিয়ে খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গার ১৪টি কেন্দ্রে একযোগে শুরু হয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিএসসি) ও এবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা। ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের এ পরীক্ষাকে শান্তিপুর্ন ও নির্বিঘ্ন করতে প্রতিটি কেন্দ্রে একজন করে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দায়িত্ব পালন করছেন।

মাটিরাঙ্গায় এবারের প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিএসসি) পরীক্ষায় ১হাজার ৩‘শ ৯৮ জন ছাত্র ও ১ হাজার ৬‘শ ৩৯জন ছাত্রী এবং এবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় ১‘শ ৫২জন ছাত্র ও ১‘শ ৩৮জন ছাত্রী অংশগ্রহণ করেছে। অন্যদিকে প্রথম দিনে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিএসসি) পরীক্ষায় ৬৭ জন ছাত্র ও ৫৮ জন ছাত্রী এবং এবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় ১৬ জন ছাত্র ও ১২ জন ছাত্রী অনুপুস্থিত রয়েছে বলে মাটিরাঙ্গা উপজেলা ভারপ্রাপ্ত প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার কৃষ্ণলাল দেবনাথ নিশ্চিত করেছেন।

পরীক্ষার প্রথম দিনেই রোববার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে মাটিরাঙ্গা মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র পরিদর্শন করেন মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বি.এম মশিউর রহমান। এসময় পরীক্ষা কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা: মো: আসাদুজ্জামান ও মাটিরাঙ্গা উপজেলা ভারপ্রাপ্ত প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার কৃষ্ণলাল দেবনাথ উপস্থিত ছিলেন। পরে তিনি মাটিরাঙ্গার আলুটিলা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ও বাইল্যাছড়ি মুসলিমপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র পরিদর্শন করেন।

এসময় তিনি পরীক্ষার পরিবেশে সন্তোষ প্রকাশ করে বলেন, জীবনের প্রথম পাবলিক পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ক্ষুদে শিক্ষার্থীরা নিজেকে আগামী দিনের জন্য প্রস্তুত করবে। এ পরীক্ষাকে তাদের জীবনের প্রথম সিড়ি বলে মন্তব্য করে তিনি এসব ক্ষুদে পরীক্ষার্থীদের সাফল্য কামনা করেন। জীবনের প্রথম সিড়িটি ভালোভাবেই উত্তীর্ণ হবে বলেও আশা প্রকাশ করেন তিনি।

তবে, শিক্ষা জীবনের প্রথম পাবলিক পরীক্ষায় অংশ নিতে আসা অনেক শিক্ষার্থীকেই স্নায়ু চাপে ভুগতে দেখা গেছে। তবে প্রথম দিন শেষে এ স্নায়ু চাপ কেটে যাবে বলে জানান মাটিরাঙ্গা মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কেন্দ্র সচিব মো: আবদুল মালেক।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।